• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

ঋণের জ্বালায় ডাব ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

পিরোজপুর প্রতিনিধি
|  ০৯ জুন ২০১৮, ১০:২৪ | আপডেট : ০৯ জুন ২০১৮, ১০:২৯
ব্রাক ও গ্রামীণ ব্যাংকের ঋণের কিস্তি পরিশোধ করতে না পেরে এক ডাব ও কলা ব্যবসায়ী কাঁঠাল গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

গেল বৃহস্পতিবার পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার মালিখালী ইউনিয়নের কারখানাবাড়ী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর নাম কৃষ্ণ বিশ্বাস (৩২)।  তিনি ওই গ্রামের মৃত জগদীশ বিশ্বাসের ছেলে।

কৃষ্ণ বিশ্বাসের স্ত্রী লক্ষ্মী রানী বিশ্বাস জানান, তার স্বামী দিনমজুরের কাজ করতেন। দিন মজুরের কাজ নিয়মিত না পাওয়ায় সংসার চালানো কষ্ট হয়ে পড়ে।
--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ভাইকে ভয় দেখাতে তিন রাউন্ড গুলি ছুঁড়লেন কলমাকান্দা উপজেলা চেয়ারম্যান
--------------------------------------------------------

 এ কারণে তিনি কয়েক মাস আগে ব্র্যাক ও গ্রামীণ ব্যাংক নামে দুটি এনজিও থেকে ঋণ তুলে ডাব ও কলার ব্যবসা শুরু করেন। গ্রামে গ্রামে ঘুরে ডাব ও কলা কিনে তা পাইকারি বিক্রি করতেন।

এ ব্যবসায় যে টাকা লাভ হতো তা দিয়ে সংসারের খরচসহ সপ্তাহে সপ্তাহে দুই এনজিওর কিস্তি পরিশোধ করতে পারতেন না তিনি। মাঝে মধ্যে কিস্তি বকেয়া হতো।

এভাবে চলতে থাকলে ব্যবসার মূলধনও ঘাটতি হয়ে যায়। এসব বিষয় নিয়ে পারিবারিক অশান্তি চলে আসছিলো। বুধবার সন্ধ্যার দিকে কৃষ্ণ বিশ্বাস ওই গ্রামের অমৃতর দোকানে টিভি দেখার কথা বলে ঘর থেকে বের হয়।

 অনেক রাত হলেও বাড়ি না ফেরায় তার স্ত্রী দুই সন্তান নিয়ে স্বামীকে খোঁজতে বের হয়ে বাড়ির পাশে দিলীপ বিশ্বাসের কাঁঠাল গাছের সঙ্গে গামছা দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় স্বামীকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

কৃষ্ণ বিশ্বাসের ছোট ভাই গোপাল বিশ্বাস জানান, তিনি আলাদা বাড়িতে বসবাস করেন এবং মাছ ধরে জীবিকা নির্বাহ করেন।

তার ভাই অনেক কষ্ট করে সংসারে চালাতেন। ঋণের চাপ ও সংসারের অভাব অনটনের কারণে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।

নাজিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা রুজু হয়েছে।

আরও পড়ুন :

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়