• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

খালেদার জন্য বোর্ড গঠন, সে অনুযায়ী চিকিৎসা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৪০ | আপডেট : ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:৩৬
খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নিতে কারা মহাপরিদর্শক ও বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নেয়া হবে। দ্রুত সময়ের মধ্যে খালেদা জিয়ার চিকিৎসকদের নিয়ে বোর্ড গঠন করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। মেডিকেল বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা। বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

রোববার বিকেল সাড়ে ৪টায় সচিবালয়ে উপস্থিত সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির প্রতিনিধি দল এসেছিলেন আমার সঙ্গে খালেদা জিয়ার বিষয়ে কথা বলতে। তাদের চেয়ারপারসন অসুস্থ। তারা আগের মতো এবারও ইউনাইটেড হাসপাতালে তাকে ভর্তির কথা বলেছেন। এবার তারা নতুন করে অ্যাপোলো হাসপাতালে নেয়ার কথাও বলেছেন।

-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : রংপুরে বাড়ছে হেলমেট বিক্রি, কমছে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা
-------------------------------------------------------

তিনি বলেন, সরকারের সবোর্চ্চ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে তার চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। জেল কোড অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

কামাল বলেন, দেশের সরকারি হাসপাতালগুলোতে সব চেয়ে ভালো চিকিৎসা হয়। এরপরও খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য বিএনপির পক্ষ থেকে ইউনাইটেড হাসপাতাল ও অ্যাপোলো হাসপাতালের কথা বলা হয়েছে। বিএনপির দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হবে। সেখানে চিকিৎকরা যদি কোনও ব্যবস্থা নিতে বলেন, আমরা সে ব্যবস্থা নেবো।

এর আগে  দুপুর ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বৈঠক করেন। বৈঠকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়া ৭ সদস্য প্রতিনিধি দলে ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান।

বৈঠক শেষে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের অবনতি হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ করেছি তাকে ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়ার ব্যবস্থা নিতে।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়। ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয় খালেদা জিয়ার ছেলে ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অন্য পাঁচ আসামিকে। রায় ঘোষণার পরই খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগার রাখা হয়েছে। তিনি কারাগারে একমাত্র বন্দি হিসেবে রয়েছেন।

আরও পড়ুন : 

এমসি/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়