• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

লোডশেডিংয়ের সময় যে কাজগুলো করবেন না

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ জুলাই ২০১৮, ১২:২৪ | আপডেট : ১৬ জুলাই ২০১৮, ১২:২৯
লোডশেডিংয়ের সমস্যায় মাঝে মাঝেই পড়তে হয় আমাদের। দৈনন্দিন জীবনে আমাদের ফ্রিজ থেকে শুরু করে মোবাইল পর্যন্ত অনেক ধরনের প্রযুক্তি পণ্য ব্যবহার করতে হয়। বিদ্যুৎ চলে গেলে এমন কিছু কাজ আছে যেগুলো করলে হতে পারে বিপদ। রিডার্স ডাইজেস্ট অবলম্বনে জেনে নিন লোডশেডিংয়ের সময় যে কাজগুলো করা যাবে না।

মোমবাতি নয় হারিকেন

লোডশেডিংয়ের সময় মোমবাতি না জ্বালিয়ে হারিকেন জ্বালান, কারণ মোমবাতি থেকে আগুন লেগে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

স্মার্টফোনের ব্যবহার কমান

বিদ্যুৎ চলে গেলে স্মার্টফোন কম করে ব্যবহার করুন। কারণ তাতে ফোন হয়ে যেতে পারে বন্ধ। জরুরি সময়ের জন্য জমা রাখুন আপনার ফোনের চার্জ। আর একান্তই যদি ফোন ব্যবহার করতেই হয় পোর্টেবল এক্সটারনাল চার্জার ব্যবহার করুন।

ইলেকট্রনিকস পণ্য লাইন থেকে খুলে রাখুন

কারেন্ট চলে গেলে বিভিন্ন ইলেকট্রনিকস পণ্যের লাইন খুলে রাখুন। এতে যখন আবার বিদ্যুৎ চলে আসে তখন জিনিসপত্রগুলো নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে। তবে একটি লাইটের সুইচ অন করে রাখতে পারেন বিদ্যুৎ আসলো কীনা সেটা দেখার জন্য।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : তন্দুরী চা খেতে চান?
--------------------------------------------------------

ফ্রিজ খুলবেন না

ফ্রিজ খুললে ফ্রিজের ভেতরের ঠাণ্ডা বাতাস বের হয়ে যায়। এতে আপনার ফ্রিজের খাবার নষ্ট হয়ে হয়ে যেতে পারে। তাই খুব দরকার না পড়লে লোডশেডিংয়ের সময় ফ্রিজ খোলার দরকার নেই।

বাসার ভেতর জেনারেটর রাখবেন না

জেনারেটর থেকে বিষাক্ত কার্বন মনোঅক্সাইড গ্যাস বের হয়, তাই জেনারেটরকে বাড়ি থেকে একটু দূরে খোলা জায়গায় রাখুন।

ব্যাটারিচালিত ফ্ল্যাশলাইটকে না, চার্জযোগ্য লাইটকে হ্যাঁ

বহুদিনের অব্যবহৃত ব্যাটারিচালিত ফ্ল্যাশলাইট দরকারের সময় নাও চলতে পারে। কারণ অনেকদিন ব্যবহার না করার কারণে ব্যাটারিগুলোর ভেতরের এসিড গলে ব্যাটারি নষ্ট হয়ে যায়। তাই এই ফ্ল্যাশলাইট ব্যবহার করার বদলে ব্যবহার করুন এলইডি ফ্ল্যাশলাইট।

আরও পড়ুন  :

কেএইচ/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়