• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

যুক্তরাষ্ট্রের ভারমন্টে ১৪ বছর বয়সী গভর্নর প্রার্থী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৪ আগস্ট ২০১৮, ১২:৩৬ | আপডেট : ১৪ আগস্ট ২০১৮, ১২:৪১
ইথান সনবর্ন

আগামী নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে মধ্যবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে ওই নির্বাচনের আগে ভারমন্ট অঙ্গরাজ্যে আজ মঙ্গলবার প্রাথমিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ডেমোক্রেটদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত এই অঙ্গরাজ্যে অবশ্য এবার নতুন এক ঢেউ লেগেছে। কেননা এই প্রাথমিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ১৪ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্র। খবর সিএনএনের।

ইথান সনর্বন নামের এই কিশোর ভারমেন্টের পরবর্তী গভর্নর হতে চান। কিন্তু এতো অল্প বয়সে নির্বাচন করলেও বেশ পরিপক্ক সনবর্ন। তিনি বলেন, সবাই যতটা ভেবেছিল আমার প্রচারণায় বয়স ততটা প্রভাব ফেলেনি। যেখানেই আমি যাই না কেন আমার বার্তাটা বয়সের সীমা ছাপিয়ে গেছে।

যুক্তরাষ্ট্রে এক বিশেষ নিয়মের কারণে নির্বাচনে অংশ নিতে পারছেন সনবর্ন। কারণ দেশটির ভারমন্ট ও কানসাস অঙ্গরাজ্যের গর্ভনর প্রার্থীদের ক্ষেত্রে কোনও বয়সসীমা নেই।

নিজের নির্বাচনে আসা প্রসঙ্গে সনবর্ন বলেন, আমার মনে হয়েছে নতুন প্রজন্মের নেতৃত্ব আমাদের অঙ্গরাজ্যের জন্য আরও ভালো কাজ করতে পারবে।

তিনি বলেন, আমি মনে করি ২০১৮ সাল হচ্ছে এমন একটি বছর যেখানে সব স্তরের মানুষ, যে অংশের মানুষ সাধারণত রাজনীতিতে জড়ান না, তারাও এবার নির্বাচন করছেন এবং আমিও তাদেরই একজন।

-----------------------------------------------------------------------
আরও পড়ুন  : বোরকা পরা নারীদের জরিমানার টাকা দেন যে ব্যক্তি
-----------------------------------------------------------------------

সনবর্ন বলেন, অধিকাংশ রাজনীতিবিদই তাদের আসনের মানুষদের জন্য কিছু করার চেয়ে লবিস্ট ও করপোরেশনগুলোর জন্য কাজ করছে। তাদের ব্যর্থতা দেখেই আমি নির্বাচনে অংশ নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এদিকে, প্রাথমিক নির্বাচনে চারজন ডেমোক্রেটিক প্রার্থীর বিরুদ্ধে লড়বেন সনবর্ন। তিনি বলেন, আমরা মানুষের জন্য কাজ করছি এমনটা বোঝাতে পারলেই নির্বাচনে জেতা সম্ভব।

সনবর্নের নির্বাচনী প্রচারণায় আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ, স্বাস্থ্যসেবার সংস্কার, অর্থনৈতিক উন্নয়ন এবং শিক্ষার মতো বিষয়গুলো গুরুত্ব পেয়েছে।

এর আগে এক নির্বাচনী বিতর্কে অংশ নিয়ে সনবর্ন বলেন, মানুষের জীবন সহজ করে তোলাটা সরকারেরই কাজ।

তবে সনবর্নই কিন্তু একমাত্র কিশোর প্রার্থী নন যিনি আজকের প্রাথমিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর আগে ৭ আগস্ট কানসাস অঙ্গরাজ্যের প্রাথমিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ছয়জন কিশোর। যদিও তারা সবাই পরাজিত হয়েছেন।

যদি গভর্নর নির্বাচিত হন তাহলে হাইস্কুল ছাড়তে হবে সনবর্নকে। তবে পরাজিত হলেও আপাতত রাজনীতির ময়দান থেকে সরে দাঁড়ানো পরিকল্পনা নেই তার। তিনি বলেন, এই নির্বাচনের পরও আমি জনগণের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে চাই।

আরও পড়ুন  : 

এ/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়