• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

রাশিয়া থেকে ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার তথ্য অ্যাকসেস হয়েছিল: কলিন্স

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৮ জুলাই ২০১৮, ১১:১৯ | আপডেট : ১৮ জুলাই ২০১৮, ১১:২৯
লন্ডনভিত্তিক রাজনৈতিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার হাতিয়ে নেয়া কোটি কোটি মার্কিন ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য রাশিয়া থেকে অ্যাকসেস করা হয়েছিল। ব্রিটেনের তথ্য কমিশনারের অফিস এমনটাই খুঁজে পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন কনজারভেটিভ পার্টির এমপি ড্যামিয়ান কলিন্স। খবর ডেইলি মেইলের।

ভুয়া সংবাদ নিয়ে একটি ব্রিটিশ পার্লামেন্টারি তদন্তের প্রধান কলিন্স বলেন, তিনি জানতে চেয়েছিলেন কে ওই তথ্য অ্যাকসেস করেছিল, তারা কী দেখতে পেরেছিল এবং অন্য কোনও কারণে সেই তথ্য ব্যবহার করা হয়েছিল কিনা?

আর এই কেলেঙ্কারির মূলে রয়েছেন ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাটা গবেষক ও মনোবিজ্ঞানের ড. আলেকজান্ডার কোগান। তার প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল সায়েন্স রিসার্চ (জিএসআর) দিসইজইওরডিজিটাললাইফ (thisisyourdigitallife) নামে একটি পারসোনালিটি কুইজ অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপ করেন। যেটির মাধ্যমে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়। ২০১৪ সালে ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার সঙ্গে কাজ করা শুরু করেন কোগান।

কলিন্স বলেন, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নে জন্ম নেয়া কোগান রাশিয়া সরকারের একটি সাইবার-বুলিং প্রজেক্টে অংশ নিয়ে রাশিয়াও গিয়েছেন। কলিন্স বলেন, ড. কোগানের কাজের ব্যাপারে তদন্ত করছে যুক্তরাজ্যের তথ্য কমিশনার এবং তাদের বিশ্বাস তার সংগ্রহ তথ্য রাশিয়াসহ অন্যান্য দেশের থার্ড পার্টি অ্যাকসেস করেছে।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ইরানের মামলা
--------------------------------------------------------

ব্রিটিশ এমপি কলিন্স বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের শুনানির সময় জানা যায়, ফেসবুকে রাশিয়ার তিন হাজার বিজ্ঞাপন ছিল এবং ১২০টি ফেসবুক পেজ প্রোমোট করতে ইন্সটাগ্রাম ব্যবহার করা হয় এবং এটি ১২ কোটি ৬০ লাখ মার্কিনির কাছে পৌঁছায়।

তিনি বলেন, যারা জাতিবিদ্বেষ ও অভিবাসীবিরোধী মনোভাব পোষণ করেন তাদের ম্যাসেজগুলো ছড়িয়ে দিতে ‘উন্নত প্রযুক্তির’ ব্যবহার করেছে রাশিয়া।

এমনকি ব্রেক্সিট বিষয়ে গণভোটের আগে যুক্তরাজ্যের ফেসবুক ব্যবহারকারীদের টার্গেট করে ‘অভিবাসনবিরোধী বিজ্ঞাপনও’ চালিয়েছে রাশিয়া।

এদিকে ড. কোগান বেশ কয়েকবার রাশিয়া যাওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তবে ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকার জন্য সংগ্রহ করা তথ্য রাশিয়ায় কারও কাছে সরবরাহের বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছেন।

তবে ড. কোগান এও স্বীকার করেছেন যে, তিনি হয়তো দুর্ঘটনাক্রমে ওই ডাটা প্রকাশ করে ফেলেছেন। তিনি বলেন, রাশিয়ায় কেউ একজন তার অজান্তেই তার কম্পিউটার হ্যাক করে থাকতে পারেন।

ড. কোগান বলেন, আমি ওই অ্যাপের মাধ্যমে সংগৃহীত তথ্য ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকাকে সরবরাহের পর সেগুলোর কী ঘটেছে তা অনুমান করা আমার জন্য কষ্টকর।

 

আরও পড়ুন : 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়