• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

পাকিস্তানে আজান সম্প্রচার না করলে টিভি লাইসেন্স বাতিল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ২০ মে ২০১৮, ১৫:১১ | আপডেট : ২০ মে ২০১৮, ১৫:১৬
বাদশাহী মসজিদ
প্রতিটি টেলিভিশন চ্যানেলকে দিনে পাঁচবার আজান সম্প্রচার করতে হবে। পাকিস্তানের উচ্চ আদালত এমনই এক নির্দেশনা দিয়েছেন। তবে আদালতের ওই রায়ের পর দেশটির ইলেকট্রনিক মিডিয়া রেগুলেটরি অথরিটি (পেমরা) আজান সম্প্রচারের ব্যাপারে পাকিস্তানে ৪৫টি টেলিভিশন চ্যানেলকে শেষবারের মতো সতর্ক করে দিয়েছে। খবর ডনের।

সংস্থাটি সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, টেলিভিশন চ্যানেলগুলো তাৎক্ষণিকভাবে আজান সম্প্রচার না করলে তাদের লাইসেন্স বাতিল করা হবে।

চলতি মাসের ৯ তারিখ ইসলামাবাদ হাইকোর্ট দেশটির সব টেলিভিশন চ্যানেলকে দিনে পাঁচবার আজান সম্প্রচারের ব্যাপারে সতর্ক করে দেয়। সকালবেলার অনুষ্ঠান ও রমজানে টেলিভিশন চ্যানেলে প্রোগ্রামের আচরণবিধি ভঙ্গ নিয়ে একটি শুনানি শেষে ওই আদেশ দিয়েছিলেন বিচারক শওকত আজিজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে এক সদস্যের বেঞ্চ।

শুনানির সময় বিচারপতি সিদ্দিকী বলেন, কোনো টেলিভিশন রমজানে ‘সার্কাস’ ও ‘নীলম ঘর’ সম্প্রচার করতে পারবে না।

বিচারপতি সিদ্দিকী বলেন, আজান মুসলমানদের জন্য সবচেয়ে বড় ব্রেকিং কিন্তু কোনো চ্যানেলই আজান সম্প্রচার করে না। উল্টো আজানের সময় টেলিভিশন চ্যানেলগুলো গান-বাজনা, নাচ ও বিজ্ঞাপন প্রচার করে।

এমনকি পিটিভিও আজান সম্প্রচার বন্ধ করে দিয়েছে। যদি এমনটা হয় তাহলে পাকিস্তানের নাম থেকে ‘ইসলাম’ শব্দটা মুছে যাবে। ইসলামের মূল্যবোধ ও সংস্কৃতি রক্ষা করা রাষ্ট্রের দায়িত্ব বলেও মন্তব্য করেন আদালত।

শুনানির সময় আদালত পেমরার কাছে জানতে চেয়েছে দেশের ১১৭টি টেলিভিশন চ্যানেলের মধ্যে কয়টিতে আজান সম্প্রচার করা হয়। এ বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট দিতে পেমরা নির্দেশও দিয়েছেন আদালত।

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়