• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

চাপ বাড়ছে এনবিআরের

সেলিম মালিক
|  ০৪ জুন ২০১৮, ১৪:৩৭ | আপডেট : ০৪ জুন ২০১৮, ১৫:২৬
ছবি সংগৃহীত
রাজস্ব আদায়ে বিশাল লক্ষ্য ধরা হলেও গেলো ৪ বছরে কোনোবারই লক্ষ্য অর্জন করতে পারেনি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআর। তারপরও আগামী অর্থবছরের বাজেটে প্রায় ৩ লাখ কোটি টাকার বিশাল টার্গেট দেয়া হচ্ছে সংস্থাটিকে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, সক্ষমতা না থাকার পরও এনবিআরের ওপর এমন চাপ অস্থির করে তুলতে পারে গোটা অর্থনীতিকে।

তবে এনবিআর চেয়ারম্যানের আশ্বাস- এবার বাস্তবায়নযোগ্য বাজেট প্রণয়নের দিকেই এগোচ্ছে সরকার।

অর্থনৈতিক সক্ষমতা বাড়ায়  প্রতি বছরই বাড়ছে বাজেটের আকার। সেই ধারাবাহিকতায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কাঁধেও বাড়ছে রাজস্ব আদায়ের বড় লক্ষ্য। আগামী অর্থবছরে ৪৮ হাজার কোটি টাকা বেশি ধরে রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্য হতে পারে ২ লাখ ৯৬ হাজার কোটি টাকা।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে নতুন গ্যাস জোনের সন্ধান
--------------------------------------------------------

তবে গেল চার বছরে রাজস্ব আদায়ের চিত্র কিছুটা হতাশাজনক। ২০১৪-১৫ অর্থবছরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রাজস্ব আদায় কম হয়েছে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকা, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ২১ হাজার কোটি, ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ১৮ হাজার কোটি এবং চলতি অর্থবছরেও ৩০ হাজার কোটি টাকা কম রাজস্ব আদায় হতে পারে বলে জানিয়েছে এনবিআর।

এনবিআরের সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ বলছেন, প্রতি বছর দেখা যাচ্ছে সর্বোচ্চ ১৭ থেকে ২০ শতাংশ গ্রোথ হচ্ছে। সেক্ষেত্রে আমার লক্ষ্যমাত্রা হওয়া উচিত ২৪ বা ২৫ শতাংশ। কিন্তু এটা যদি ৩৫ বা ৪০ হয়ে যায়, তাহলে তো ওখানে পৌঁছাতে পারবো না।

বিশ্লেষকদের মতে, সক্ষমতার কথা বিবেচনা নিয়েই রাজস্ব আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা উচিৎ।

অর্থনীতিবিদ মির্জা আজিজ বলেন, ব্যক্তিশ্রেণির ক্ষেত্রে আড়াই লাখ পর্যন্ত করমুক্ত আয়সীমা আছে। আজকের দিনে গ্রামের অনেকের আড়াই লাখ টাকা রোজগার আছে। কিন্তু তারা ভ্যাটের আওতায় নেই। সরকারের রাজস্ব আদায়ের ক্ষেত্রে করনেট বাড়াতে হবে।  

আর স্থানীয় শিল্পের সুরক্ষা ও বিনিয়োগ বৃদ্ধিকে গুরুত্ব দিয়েই লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পদক্ষেপ নেয়ার কথা জানালেন এনবিআর চেয়ারম্যান।

এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, আগামী বাজেটে করপোরেট কর কিছুটা কমানো হতে পারে। তবে সার্বিক করের আওতা বাড়াতে নানা পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

আরও পড়ুন :

এসআর

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়