• ঢাকা সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৯ আশ্বিন ১৪২৫

খুলনায় পশু জবাইয়ের জন্য ১৬৩টি স্থান নির্ধারণ

খুলনা প্রতিনিধি
|  ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৫৪ | আপডেট : ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৯:২৬
ঈদ-উল-আজহায় খুলনা সিটি  করপোরেশনের (কেসিসি) উদ্যোগে নির্দিষ্ট স্থানে পশু জবাইয়ের জন্য ৩১টি ওয়ার্ডের ১৬৩টি স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে।

পশুর বর্জ্য দ্রুত অপসারণ এবং রক্তে পরিবেশ দূষণরোধে নির্ধারিত স্থানে পশু জবাইয়ের ওপর জোর দেয়া হয়েছে। আগামী বুধবার সারা দেশে পবিত্র ঈদ-উল-আজহা উদযাপিত হবে। এ দিন মুসলিমরা ধর্মীয় বিধান মেনে পশু  কুরবানি দেন।

নির্ধারিত স্পটে পশু জবাই দেয়া হলে কুরবানিদাতারা আট সুবিধা পাবেন। সেগুলো হলো- পশু কুরবানির জন্য পর্যাপ্ত জায়গা, পানির  সুবিধা, রোদ-বৃষ্টি থেকে রক্ষা পেতে ছামিয়ানা, বসার জন্য চেয়ার, মাংস পরিবহনের জন্য ভ্যান, নাড়ি-ভুঁড়ি পরিষ্কারের জন্য শ্রমিক এবং ময়লা-আবর্জনা পরিষ্কারের জন্য শ্রমিক ও গাড়ির ব্যবস্থা। এসব কার্যক্রম সফল করতে ওয়ার্ড প্রতি ৯০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

-------------------------------------------------------
আড়ো পড়ুন : এএসআই পুলিশ সুপারকে বললেন- চাকরি থেকে (ইয়াবা) ব্যবসা অনেক ভালো
-------------------------------------------------------

পশু জবাইয়ের জন্য নির্ধারিত স্থান-  ১ নং ওয়ার্ডে তরুণ সংঘ মাঠ, দীঘির পশ্চিম পাড়, কালিবাড়ী দীঘির পাড়, মহেশ্বরপাশা মতির বাগানবাড়ী, মহেশ্বরপাশা প্রাথমিক বালিকা বিদ্যালয়, পুলিশ ফাঁড়ি রোড ও মহেশ্বরপাশা শহীদ জিয়া কলেজ। ২নং ওয়ার্ডে কেডিএ আবাসিক জামে মসজিদের সামনে, অ্যাযাক্স জুট মিলস মাঠ, মীরেরডাঙ্গা তেঁতুলতলা, সেনপাড়া জহির উদ্দিন গণবিদ্যাপীঠ মাঠ ও রেলগেট কৃষ্ণমোহন স্কুল মাঠ। ৩নং ওয়ার্ডে মহেশ্বরপাশা সাড়াডাঙ্গা মাঠ, কার্ত্তিককুল ঈদগাহ ময়দান, মধ্যডাঙ্গা স্কুলমাঠ, শশিভূষণ স্কুলমাঠ ও মহেশ্বরপাশা আদর্শ প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ। ৪নং ওয়ার্ডে দেয়ানা দক্ষিণপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ, দৌলতপুর কলেজিয়েট স্কুলমাঠ প্রাঙ্গণ, দেয়ানা পূর্বপাড়া হাসপাতাল মোড়, দেয়ানা উত্তরপাড়া স্কুলমাঠ ও দেয়ানা মোল্যাপাড়া স্কুলমাঠ। ৫নং ওয়ার্ডে মহসিন স্কুলমাঠ, মিনাক্ষী হল সম্মুখস্থ ঈদগাহ মাঠ, বীণাপাণি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মাঠ, দৌলতপুর তুলাপট্টি খোলা চত্বর ও পাবলা দফাদারপাড়া খোলা মাঠ। ৬নং ওয়ার্ডে পাবলা সবুজ সংঘ মাঠ, পাবলা শেরেবাংলা স্কুল মাঠ, পাবলা কারিকরপাড়া স্কুলমাঠ, পাবলা মধ্যপাড়া দাসের ভিটা ও পাবলা কবির বটতলা খোলা মাঠ। ৭নং ওয়ার্ডে কাশিপুর ফুটবল মাঠের উত্তর পাশে, মোল্যাবাড়ির সামনে ও শহীদ কমিশনারের বাড়ির সামনে। ৮নং ওয়ার্ডে খানজাহান আলী মাদরাসা ক্রিসেন্ট গেট, ক্রিসেন্ট জামে মসজিদের পাশে, ক্রিসেন্ট আলিম মসজিদের পাশে ও গোয়ালপাড়া কমিউনিটি সেন্টার। ৯নং ওয়ার্ডে গোয়ালখালী ক্যাডেট মাদরাসার সম্মুখে, বাস্তুহারা কলোনি ঈদগাহ মাঠ, মুজগুন্নী নেছারিয়া মাদরাসার সম্মুখে, মুজগুন্নী উত্তরপাড়া ঈদগাহ মাঠ ও আহলে হাদিস মসজিদ চত্বর। ১০নং ওয়ার্ডে চিত্রালী বাজার দারুল মোকাররম মাদরাসা মাঠ, খাদেমুল ইসলাম মাদরাসা, স্কাউট মাঠ, খালিশপুর শ্রমিক ময়দান ও নয়াবাটি ওয়ার্ড অফিস সংলগ্ন। ১১নং ওয়ার্ডে খালিশপুর কসাইখানা, প্লাটিনাম শ্রমিক ক্লাব, পিপলস পাঁচতলা বয়স্ক মাদরাসা প্রাঙ্গণ, খালিশপুর তৈয়্যেবা কলোনি মাদরাসা সংলগ্ন ও পিপলস নিউ কলোনি প্রাঙ্গণ। ১২নং ওয়ার্ডে প্রভাতী মাধ্যমিক স্কুল চত্বর, স্যাটেলাইট স্কুল চত্বর, হাউজিং তিনতলা, শ্রমিক ভবন চত্বর, বিআইডিসি রোড ও বায়তুল কেরাম মসজিদ চত্বর। ১৩নং ওয়ার্ডে চরের হাট ঈদগাহের পাশে, কাজী ইমতিয়াজ উদ্দিন’র বাড়ির সামনে, ২নং নেভী গেট, ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর অফিসের সামনে, আলমনগর নূরানিয়া জামে মসজিদের সামনে ও বিআইডিসি রোড বনফুল কাউন্টারের সামনে। ১৪নং ওয়ার্ডে রায়েরমহল প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মাঠ, মুজগুন্নী মহাসড়ক, রোড নং-৮ এর মাথায়, বয়রা মধ্যপাড়া মসজিদের সামনে, কাজী আ. বারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ ও পূর্ব বয়রা কালিবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির পাশে। ১৫নং ওয়ার্ডে পোর্ট আবাসিক এলাকা, কাস্টম আবাসিক এলাকা, হালদারপাড়া, পলিটেকনিক কলেজের ভেতরের মাঠ, পালপাড়া রোলিং মিল মসজিদ মাদরাসার মাঠ, ভ্যাল্যের বিল রোড, সোনালী ব্যাংক স্টাফ কোয়ার্টারের ভেতরে ও ১নং নেভী গেটের পাশের মাঠে। ১৬নং ওয়ার্ডে জোড়াগেট সিঅ্যান্ডবি কলোনি মসজিদ চত্বর, নূরনগর ইসলাম মিশন মাদরাসা চত্বর, ১৬নং ওয়ার্ড অফিস চত্বর, বয়রা ফারুকিয়া মাদরাসা চত্বর, বয়রা আন্দিরঘাট জামে মসজিদ চত্বর, বয়রা মেইন রোড টেক্সটাইল মিল জামে মসজিদ চত্বর ও বয়রা হাজী মুনসুর স্কুল চত্বর। ১৭নং ওয়ার্ডে ছোট বয়রা সবুজ সংঘের মাঠ, সোনাডাঙ্গা আ/এ ১ম ফেজ বায়তুল মোকারম মসজিদের সামনের মাঠ, সোনাডাঙ্গা আ/এ ২য় ফেজ মসজিদের মাঠ, সোনাডাঙ্গা আ/এ ৩য় ফেজ মসজিদের সামনে মাঠ, সোনাডাঙ্গা হাসানবাগ কমার্শিয়াল কলেজের মাঠ ও হাফিজনগর আমানত জামে মসজিদের মাঠ। ১৮নং ওয়ার্ডে তালিমুল মিল্লাত মাদরাসা প্রাঙ্গণ, সিদ্দিকিয়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গণ, গোবরচাকা শিশু একাডেমি মাঠ, সবুজবাগ মসজিদ প্রাঙ্গণ, গল্লামারী কসাইখানা ও মসজিদে ওমর ঈদগা মাঠ। ১৯নং ওয়ার্ডে তেঁতুলতলা মোড় চত্বর, ইসলামাবাদ প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন মাঠ, ন্যাশনাল স্কুলমাঠ, আলীশানের মোড়, পল্লীমঙ্গল স্কুলমাঠ, গোবরচাকা শিশু একাডেমির মাঠ, শেখপাড়া প্রধান সড়ক ও সোনাপোতা মোড়। ২০নং ওয়ার্ডে জিন্নাহ মসজিদ চত্বর, সিটি গার্লস স্কুলমাঠ, বায়তুল আমান জামে মসজিদ চত্বর, বাগানবাড়ি জামে মসজিদ চত্বর, খানজাহান আলী জামে মসজিদ চত্বর, শেখপাড়া তেঁতুলতলা মোড়, শেখপাড়া মেইন রোড চত্বর ও বি.কে রায় রোড, চামড়াপট্টি। ২১নং ওয়ার্ডে হেলাতলা রোড, রেলওয়ে স্টেশন, বিশ্ব ইসলাম মিশন দাখিল মাদরাসা প্রাঙ্গন, ৪নং ফুড ঘাট চত্বর, রেলওয়ে হাসপাতাল রোড, বায়তুন নাজাত মাদরাসা চত্বর ও স্যার ইকবাল রোড, এ. হোসেন প্লাজার সামনে। ২২নং ওয়ার্ডে ‘করোনেশন বিদ্যা নিকেতন, ১নং কাস্টম ঘাট, খান এ সবুর মহিলা মাদরাসা, খুলনা জিলা স্কুল ও হাজী আবু হানিফ মাদরাসা ওয়াপদা রোড, নতুন বাজার। ২৩নং ওয়ার্ডে গোলক মনি শিশুপার্ক, ‘ল’ কলেজ মসজিদ প্রাঙ্গণ, পুরাতন জোহরা খাতুন শিশু বিদ্যালয় ও ইয়োলোর মাঠ। ২৪ নং ওয়ার্ডে দারুল উলুম মাদরাসা প্রাঙ্গণ, নিরালা স্কুল মাঠ, অগ্রণী ব্যাংক টাউন মসজিদ প্রাঙ্গণ, গল্লামারী ও সবুজবাগ মসজিদ প্রাঙ্গণ। ২৫নং ওয়ার্ডে সুলাইমাননগর পার্ক, বসুপাড়া কবরস্থান সংলগ্ন মসজিদ প্রাঙ্গণ, ২৫নং ওয়ার্ড সংলগ্ন খোলা জায়গা, সিদ্দিকীয়া মাদরাসা মাঠ, হক সাহেবের রাইস মিল চাতাল, ইমদাদ খালাসির রাইস মিল চাতাল, ইসলাম কমিশনার মোড়ের পাশের মাঠ ও খোরশেদনগর প্রবেশ মুখ চত্বর। ২৬নং ওয়ার্ডে ওয়ার্ড কার্যালয়ের খোলা চত্বর, পশ্চিম বানিয়াখামার প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন খোলা চত্বর, কাশেমাবাদ জামে মসজিদ ও বরকতিয়া মাদরাসা সংলগ্ন খোলা চত্বর। ২৭নং ওয়ার্ডে খাদেমুল ইসলাম মাদরাসা, পূর্ব বানিয়াখামার, মিস্ত্রিপাড়া পৌর বাজার, পিটিআই স্কুল ট্রেনিং সেন্টার সংলগ্ন মাঠ, মারকাজুল উলুম মাদরাসা সংলগ্ন মাঠ ও বাইতুন নাজাত মাদরাসা। ২৮নং ওয়ার্ডে পশ্চিম টুটুপাড়া প্রাইমারী স্কুল রোড, এ.এন দাশ লেন, টুটপাড়া, মিয়াপাড়া ২য় গলি, দক্ষিণ টুটুপাড়া বালুর মাঠ ও দক্ষিণ টুটপাড়া ঈদগাহ মাঠ। ২৯নং ওয়ার্ডে খুলনা আলিয়া মাদরাসা প্রাঙ্গণ, কয়লাঘাট প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ ও সবুরণনেছা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়। ৩০নং ওয়ার্ডে টুটপাড়া তালতলা হাসপাতাল চত্বর, চাঁনমারী আহম্মাদীয়া মাদরাসা চত্বর, দক্ষিণ টুটপাড়া বায়তুল আমান মসজিদ চত্বর, মরিয়ম মসজিদ চত্বর, দিলখোলা রোড ও শেখ মকবুল আহম্মেদ মসজিদ এর পাশে এবং ৩১ নং ওয়ার্ডে লবণচরা বান্দা বাজার সংলগ্ন খোলা চত্বর, মোক্তার হোসেন সড়ক, শিপইয়ার্ড প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ, ৩১নং ওয়ার্ড অফিস সংলগ্ন খোলা চত্বর ও চাঁনমারী মাদরাসা মাঠ।

কেসিসির ভেটেরিনারি সার্জন ডা. রেজাউল করিম বলেন, ঈদুল আজহার দিনে নগরীতে প্রায় ১২ হাজার পশু কুরবানি করা হয়। যত্রতত্র পশু জবাইয়ের ফলে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ময়লা-আবর্জনা অপসারণের জন্য কেসিসিকে বেগ পেতে হয়। এতে পরিবেশ দূষণের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। পরিবেশ দূষণরোধে নির্দিষ্ট স্থানে পশু কুরবানির জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তারই আলোকে কেসিসি কর্তৃক পশু কুরবানির সুবিধা নিশ্চিত করে ওয়ার্ডভিত্তিক স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়