• ঢাকা বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১ আশ্বিন ১৪২৫

চট্টগ্রামে হোটেলে যুবকের গলাকাটা মরদেহ

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি
|  ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১১:০২ | আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১১:৩৭
চট্টগ্রাম মহানগরের খুলশী থানা এলাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে নিহতের স্ত্রী ও শিক্ষানবীশ ডাক্তার রোকসানা আক্তার পপিকে খুঁজছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে ‘লেক ভিউ মোটেল’ নামের একটি আবাসিক হোটেল থেকে মাইনুদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত যুবকের নাম মো. মাইনুদ্দিন। তিনি ফেনী জেলার ছাগনাইয়া থানার জয়পুর গ্রামের মৃত সিরাজুল হকের ছেলে।

খুলশী থানার এসআই নোমান বলেন, লেক ভিউ মোটেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে খবর পেয়ে ২০৩ নম্বর কক্ষ থেকে মাইনুদ্দিন নামে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার মাথা শরীর থেকে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন ছিল।

তিনি আরও বলেন, নিহতের মানিব্যাগের কাগজপত্র দেখে পরিচয় শনাক্ত করা হয়েছে। রাতেই পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে আসেন। পরিবার ও হোটেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত হয়েছি গেলো ১৫ আগস্ট রাতে স্ত্রী রোকসানা আক্তার পপিকে নিয়ে মাইনুদ্দিন ওই হোটেলে ওঠেন। ১৬ আগস্ট রাতে হোটেল কর্তৃপক্ষ ওই রুমে কেউ আছে কিনা তা যাচাই করতে গিয়ে মাইনুদ্দিনের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পায়।

তিনি জানান, নগর গোয়েন্দা পুলিশ ও খুলশী থানার পক্ষ থেকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে নিহতের স্ত্রী শিক্ষানবীশ ডাক্তার রোকসানা আক্তার পপিকে এ ঘটনার জন্য দায়ী ভাবা হচ্ছে। তাকে খুঁজতে কাজ শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন  :

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়