• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

রাজবাড়ীতে ফের গৃহবধূকে জবাই করে হত্যা

রাজবাড়ী প্রতিনিধি
|  ০৮ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৩৭
রাজবাড়ীতে পাঁচদিনের ব্যবধানে আবারও গৃহবধূকে জবাই করে হত্যার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে জেলা সদরের বানিবহ ইউনিয়নের আটদাপুনিয়া গ্রামে গৃহবধূ দুই সন্তানের জননী আদুরী বেগম (২৫) এর জবাই করা সরদেহ উদ্ধার করেছ রাজবাড়ী সদর থানা পুলিশ।

নিহত আদুরী বেগম বানীবহ ইউনিয়নের আটদাপুনিয়া গ্রামের ৮নং ওয়ার্ডের রড মিস্ত্রি মিজানুর রহমানের স্ত্রী। মিজান তার কর্মস্থল কক্সবাজারের উখিয়াতে রয়েছেন।

নিহত গৃহবধূর শ্বশুর করিম মৃদ্ধা ও বানীবহ ইউপি’র ৮নং ওয়ার্ড সদস্য জিয়াউর রহমান জানান, গত দুই মাস আগে তার ছেলে মিজানুর কক্সবাজারের উখিয়ায় রড মিস্ত্রির কাজে গেছে। গৃহবধূ আদুরী তার দুই ছেলে সন্তানকে নিয়ে একটি ছাপড়া ও পাটকাঠির বেড়ার ঘরে থাকতেন। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১টার দিকে শিশুদের কান্নার শব্দ শুনে ঘরে গিয়ে দেখা যায় বিছানার উপরে আদুরীর গলাকাটা মরদেহ। শিশুদের হাতে পায়ে ওদের মায়ের রক্ত লেগে আছে। পরে স্থানীয় মেম্বারকে খবর দেয়া হয়।

পরে তারা পুলিশকে খবর দেন। তবে করা কি কারণে আদুরীকে হত্যা করেছে তারা কেউ বলতে পারছেন না।

সদর থানার এস আই বদিয়ার রহমান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে। দুর্বৃত্তরা গলাকেটে হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। হত্যার সঠিক কারণ অনুসন্ধানে মরদেহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

রাজবাড়ী থানার ওসি তারিক কামাল জানান, খবর পেয়ে রাতেই থানা পুলিশের সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। বুধবার সকালে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরির পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বিপিএম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ৩ আগস্ট (শুক্রবার) জেলা সদরের পশ্চিম মুলঘর থেকে দাদী ও নাতনীর জবাই করা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেই ঘটনায় অজ্ঞাত আসামি করে থানায় মামলা দায়ের হলেও এখন পর্যন্ত ঘটনার সঠিক কারণ ও হত্যাকারীদের শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।

জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়