• ঢাকা বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৪ আশ্বিন ১৪২৫

এসএসসি পরীক্ষার খাতা উধাও, কক্ষপরিদর্শক বহিষ্কার

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
|  ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২১:৫৬ | আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২২:০৮
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার জছি মিয়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এসএসসির গণিত পরীক্ষায় এক পরীক্ষার্থীর খাতা না পাওয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এই ঘটনায় ওই পরীক্ষার্থীসহ কক্ষ পরিদর্শককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

পরীক্ষার্থীর বাড়ি তল্লাশি করেও উদ্ধার হয়নি হারানো খাতা। এ নিয়ে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে উপজেলা প্রশাসন।

এ কেন্দ্রে নয়টি প্রতিষ্ঠানের গণিত পরীক্ষায় ৪৩৬ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা শেষে নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষার খাতা জমা দেন। কিন্তু সংশ্লিষ্টরা খাতাগুলো প্যাকেটজাত করে বোর্ডে পাঠানোর সময় একটি খাতার হদিস না পাওয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। 

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন: কুড়িগ্রামে বিএন‌পি-জামায়াত নেতাকর্মীসহ গ্রেপ্তার ৫৬
--------------------------------------------------------

খাতার ওএমআর তল্লাশি করে নিশ্চিত হন গংগারহাট এমএস উচ্চ বিদ্যালয়ের এক পরীক্ষার্থীর খাতা নেই। তার নাম আরফিন খাতুন। রোল ৬৩৭৬৬২, রেজি: ১৫১৭৭০৯০২৮। পরে পুলিশসহ শিক্ষকরা ওই পরীক্ষার্থীর বাড়িতে গেলেও খাতাটি উদ্ধার হয়নি।

জছি মিয়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব আবেদ আলী জানান, পরীক্ষার্থীর বাড়িতে যাওয়া হয়। সেখানে অনেক চেষ্টা করে খাতা না পাওয়ায় ওই পরীক্ষার্থীসহ কক্ষ পরিদর্শককে সন্ধ্যার সময় বহিষ্কার করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দেবেন্দ্র নাথ উরাঁও আরটিভি অনলাইনকে জানান, বিষয়টি শুনে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পাবলিক পরীক্ষা আইনে কক্ষ পরিদশর্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এদিকে নাগেশ্বরীতে পরীক্ষা চলাকালে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে এক কক্ষ পরিদর্শককে বহিষ্কার করা হয়েছে। বহিষ্কৃত শিক্ষকের নাম ইউসুফ আলী।

তিনি বেরুবাড়ী দাখিল মাদরাসায় কর্মরত। শনিবার গণিত পরীক্ষার দিন উপজেলার কচাকাটা বহুমুখী দাখিল মাদরাসা কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। জানা যায়, পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ওই শিক্ষকের কক্ষে শিক্ষার্থীরা দেখাদেখি করে পরীক্ষা দিচ্ছিল।

এ সময় ওই কক্ষে প্রবেশ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। পরে ওই শিক্ষককে দায়িত্বে অবহেলার কারণে বহিষ্কার করেন তিনি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শংকর কুমার বিশ্বাস জানান, ওই কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্বে থাকা শিক্ষক নিজদায়িত্ব পালনে অবহেলা করেছেন। এ অপরাধে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:

জেবি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়