• ঢাকা শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫

তিনজনকে লাঠিপেটা করায় ট্র্যাফিক পুলিশ ক্লোজড

দিনাজপুর প্রতিনিধি
|  ০৮ নভেম্বর ২০১৭, ১৯:৩০
তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দিনাজপুরে নারীসহ তিন ব্যক্তিকে বেধড়ক লাঠিপেটা করার অভিযোগে এক ট্র্যাফিক পুলিশকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।  তাকে জেলার পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে।

শহরের হাসপাতাল মোড়ে বুধবার বেলা ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। বরখাস্তকৃত ট্র্যাফিক পুলিশের নাম জামান।

গুরুতর আহত মো. ওবাইদুল ইসলামকে (৪৫) স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের কর্মচারী। আহত অপর দুইজন হলেন, নজরুল ইসলাম ও মেরিনা বেগম।

নজরুল ইসলাম দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের সিভিল সার্জন অফিসের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী, আর মেরিনা বেগম চা দোকানদার।

এ ঘটনায় ওই ট্র্যাফিক পুলিশের বিচারের দাবিতে তিন ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করেন দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার ১১টার দিকে বাই-সাইকেলে করে অফিসে যাচ্ছিলেন মো. ওবাইদুল ইসলাম।

দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের সিভিল সার্জন অফিসের সামনে একটি বাসকে পাশ কাটাতে গিয়ে তিনি সাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কর্তব্যরত ট্র্যাফিক পুলিশ জামানের ওপর পড়ে যান।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন জামান। পরে পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক আনসার-ভিডিপির সদস্যদের হাত থেকে লাঠি নিয়ে ওবাইদুল ইসলামকে বেধড়ক পেটাতে শুরু করেন। এ সময় ওবাইদুল ইসলামকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে নজরুল ইসলাম ও মেরিনা বেগমকেও লাঠিপেটা করেন জামান।

এ ঘটনায় দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতালের কর্মচারীরা ট্রাফিক পুলিশ জামানকে আটক করে ওই হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. পারভেজ সোহেল রানার রুমে নিয়ে যান। একই সময় আহত ওবাইদুল ইসলামকে রক্তাক্ত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে বিচারের দাবিতে তিন ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করেন ওই হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। এরপর পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে ট্রাফিক সার্জন বারী এসে জামানকে নিয়ে যান।

সূত্র জানায়, দুপুর ১২টার দিকে ডা. পারভেজ সোহেল রানার রুমে আসেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আশরাফ, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন।

তারা দিনাজপুর জেনারেল হাসপাতারের কর্মকর্তা ও বাংলাদেশ চতুর্থ শ্রেণি কর্মচারী সমিতির জেলা শাখার সভাপতি আব্দুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক ফরিদ হোসেন ও হাসপাতাল শাখার সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ মিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আশরাফ জানান, এক নারীসহ তিনজনকে মারধর করায় ট্রাফিক পুলিশ জামানকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং এ ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ মামলা করতে চাইলে তাও গ্রহণ করা হবে।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়