• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৫ আশ্বিন ১৪২৫

কোটা সংস্কারের রাশেদ খাঁনসহ ২০ জনের জামিন

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২০ আগস্ট ২০১৮, ২০:২২ | আপডেট : ২১ আগস্ট ২০১৮, ০০:৫৯
কোটা সংস্কার আন্দোলনের ঘটনায় দায়ের করা পাঁচ মামলায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খাঁনসহ ২০ আন্দোলনকারীকে জামিন দিয়েছেন আদালত।

আজ সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতের একাধিক এজলাস তাদের জামিন মঞ্জুর করেন। তাদের বিরুদ্ধে রাজধানীর শাহবাগ ও রমনা থানায় একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছিল।

কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে শাহবাগ থানায় দায়ের করা একাধিক মামলার আসামি হলেন ২২ জন এবং রমনা থানায় দায়ের করা মামলায় আসামি পাঁচ জন। জামিন পাওয়া ২০ শিক্ষার্থীর মধ্যে কয়েকজন একাধিক মামলার আসামি বলে জানা গেছে।

গত ১ জুলাই দুপুরে মিরপুর-১৪ নম্বরের ভাষানটেক বাজার এলাকার মজুমদার রোডের বাসা থেকে রাশেদকে আটক করে ডিবি পুলিশ। পরে শাহবাগ থানায় করা আইসিটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ। মামলাটি দায়ের করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক আল নাহিয়ান খান জয়। এছাড়া বাকি শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে পুলিশের কর্তব্য পালন ও সরকারি কাজে বাধা দেয়া এবং নাশকতার অভিযোগ করা হয়।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের মামলায় জামিন পাওয়া আসামিরা হলেন- রাশেদ খাঁন, তরিকুল ইসলাম, ফারুক হোসেন, জসিম উদ্দিন, মশিউর রহমান সোহেল, সাখাওয়াত হোসেন, মাসুদ আলম, আবু সাঈদ, ফজলে রাব্বী, রাকিবুল হাসান, আতিকুর রহমান, সাইদুর রহমান, আলী হোসেন, মাসুদ সরকার, রাকিবুল হাসান, ইউসুফ চৌধুরী, সাইদুল ইসলাম তৌহিদ, আলমগীর হোসেন ও মাহবুবুর রহমান। এদের মধ্যে রাশেদ খাঁনসহ কয়েকজন একাধিক মামলার আসামি।

৮ জুলাই কোটা সংস্কার নিয়ে ফেসবুক লাইভে প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে মানহানিকর বক্তব্য দেয়ার অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় ৫ দিন এবং আন্দোলনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসায় ভাংচুরের অপর মামলায় রাশেদের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গেল ৮ এপ্রিল কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র সিকিউরিটি অফিসার এস এম কামরুল আহসান বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। এছাড়া আন্দোলনকারীরা রাস্তা বন্ধ করে টায়ার ও আসবাবপত্র জ্বালানো, নাশকতা, পুলিশকে মারধর ও কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে শাহবাগ থানায় তিনটি মামলা করে পুলিশ।

এমসি/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়