• ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৬ আগস্ট ২০১৮, ১ ভাদ্র ১৪২৫

‘দাঁড়িয়ে থাকা ছাত্রছাত্রীদের ওপর ইচ্ছা করেই বাস উঠিয়ে দেই’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৮ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৪৪ | আপডেট : ০৯ আগস্ট ২০১৮, ০৮:৪৭
জাবালে নূরের বাসচালক মাসুম বিল্লাহ ইচ্ছাকৃতভাবেই রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীদের চাপা দিয়েছিল বলে আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

আজ বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম গোলাম নবীর আদালতে তিনি এই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে তিনি হত্যার দায় স্বীকার করেন। পরে আদালত  তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

মাসুম বিল্লাহ আদালতকে বলেন, বেশি ভাড়া পাওয়ার আশায় আগে যাত্রী উঠানোর জন্য তিনটি বাসের সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছিলাম। ছাত্ররা রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকায় ইচ্ছাকৃতভাবে তাদের ওপর বাস উঠিয়ে দেই।

তিনি আরও বলেন,  ঢাকা মেট্রো-ব-১১-৯২৯৭ নম্বর, জাবালে নূর বাসের  চালক আমি। গত ২৯ জুলাই জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের নিচে দাঁড়িয়ে থাকা ১৪ থেকে ১৫ জন ছাত্রছাত্রীর ওপর ইচ্ছাকৃতভাবে গাড়ি উঠিয়ে দিয়ে তাদের গুরুতর জখম করি।এরপর গাড়ি থেকে নেমে পালিয়ে যাই। আমার গাড়ির আঘাতেই রমিজ উদ্দিন কলেজের দুজন শিক্ষার্থী নিহত হয়। আহত হয় ৮ থেকে ১০ জন।

এর আগে গত ১ আগস্ট মাসুম বিল্লাহ’র সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন আদালত।

গত ২৯শে জুলাই শহীদ রমিজ উদ্দিন কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আব্দুল করিম রাজীব মারা যায়। এছাড়া আরও কয়েকজন ছাত্রছাত্রী আহত হয়।
আরও পড়ুন :

আরসি/ এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়