• ঢাকা শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৭ আশ্বিন ১৪২৫

যুক্তরাষ্ট্রে বাবা-মা-ভাইকে হত্যার পর হামলাকারীর আত্মহত্যা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৯ জুলাই ২০১৮, ১৪:৪৮ | আপডেট : ২৯ জুলাই ২০১৮, ১৪:৫৩

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের রবসটাউনে ৬০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি তার বাবা ও সৎমাসহ আরও দুইজনকে হত্যার পর আত্মহত্যা করেছেন। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, রিচার্ড স্টারি নামের ওই ব্যক্তি তার বাবা ও সৎমাকে গুলি করার আগে আরও দুইজনকে হত্যা করেছে। খবর নিউ ইয়র্ক টাইমস, সিএনএনের।

রবসটাউনের পুলিশ জানিয়েছে, তারা স্থানীয় সময় সন্ধ্যার দিকে রেটামা ম্যানর নার্সিং সেন্টারে বন্দুক হামলার খবর পেয়েছেন।

রবসটাউন সিটি সেক্রেটারি হারমান রদ্রিগেজ বলেছেন, সন্দেহভাজন হামলাকারীসহ ওই নার্সিং হোমের ভেতর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিনজনের মৃতদেহ খুঁজে পেয়েছেন তারা।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ইসরায়েলি সেনাকে চড় মারা আহেদ তামিমি কারামুক্ত
--------------------------------------------------------

এদিকে রবসটাউন পুলিশ বিভাগ এক বিবৃতিতে হামলাকারীকে রিচার্ড স্টারি (৬০) হিসেবে চিহ্নিত করেছে। ওই বিবৃতিতে বলা হয়, স্টারির মৃতদেহের পাশে একটি হ্যান্ডগান পড়েছিল।

এছাড়া নার্সিং হোমের অপর দুই মৃতব্যক্তিকে আরনেস্ট স্টারি (৮৫) ও তার স্ত্রী থেলমা মনটালভো হিসেবে চিহ্নিত করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, স্টারি দম্পতির বাড়িতে গুলির ঘটনা ঘটেছে বলে আমরা খবর পাই। সেখানে গিয়ে আমরা দুজনের মৃতদেহ দেখতে পাই। তাদের একজন এই দম্পতির ১৩ বছরের পালক ছেলে ও অপরজন মনটালভোর ৪১ বছর বয়সী ছেলে।

পুলিশের বিবৃতিতে বলা হয়, এই চারজনকে হত্যার পর হামলাকারী আত্মহত্যা করে। তাদের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, পুরো বিষয়টি দেখে মনে হচ্ছে এটি একটি হত্যার পর আত্মহত্যার ঘটনা। তবে আমাদের তদন্ত এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে। তাই আমরা ধারণাপ্রসূত হয়ে কিছু বলতে চাই না।

আরও পড়ুন : 

এ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়