• ঢাকা সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬ ফাল্গুন ১৪২৫

অসংক্রামক ব্যাধিতে দেশের ৬০ শতাংশ মানুষের মৃত্যু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:১১ | আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:২৫
স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, অসংক্রামক ব্যাধির (নন কমিউনিকেবল রোগ) ক্ষেত্রে বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাত এখনও সম্পূর্ণ প্রস্তুত নয়। এ ধরনের রোগ আমাদের দেশে নতুনভাবে আক্রমণ করছে। দেশের প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষের মৃত্যুর কারণ এই নন কমিউনিকেবল রোগ।

সোমবার রাজধানীর একটি পাঁচতারকা হোটেলে শিপ আইচি মেডিকেল সার্ভিসেস লিমিটেড আয়োজিত এক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ‘বাংলাদেশের অসংক্রামক ব্যাধির বৃদ্ধি, প্রতিকার ও প্রতিরোধ এবং স্বাস্থ্যক্ষেত্রে জাপান ও বাংলাদেশের সম্ভাব্য সহযোগিতা’ শিরোনামে ওই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এটি বিশ্বব্যাপী একটি সমস্যা। এ কারণে আমরা আমাদের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসাসেবার কর্মপরিকল্পনা পরিবর্তন করেছি। আমরা এ বিষয়ক বিশেষায়িত হাসপাতাল, ইন্সটিটিউট ছাড়াও জেলা পর্যায়ে এই রোগ বিষয়ক সেবা চালু করছি।

তিনি আরও বলেন, দেশে অনেক আগে থেকেই সংক্রামক ব্যাধির প্রকোপ রয়েছে। সে সব ক্ষেত্রে আমরা সম্পূর্ণ সফলতা অর্জন করেছি। এখন আমাদের এই অসংক্রামক ব্যাধির মোকাবেলায় জরুরি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন এবং আমরা তা করছি। অসংক্রামক ব্যাধি বিশেষ করে ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, ক্যানসার, কিডনি রোগের বিষয়ে সচেতন হতে হবে। সর্বোপরি আমাদের অসচেতন জীবনযাপনের ধারা পরিবর্তন করতে হবে।

মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে আমরা উল্লেখ করেছি, দেশের প্রতিটি জেলায় ক্যানসার ও কিডনি বিষয়ক আলাদা হাসপাতাল থাকবে। এই সেবা চালু হবার আগ পর্যন্ত বর্তমানে প্রতিটি জেলা হাসপাতালে ক্যানসার ও কিডনি বিষয়ক আলাদা বিভাগ চালু করা হচ্ছে। তাছাড়া চিকিৎসকদের এবিষয়ে আরও বেশি দায়িত্বশীল হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের চিকিৎসাসেবার অর্ধেকের বেশি প্রাইভেট হাসপাতালে হয়। কিন্তু এক্ষেত্রে অতিরিক্ত খরচের একটি অভিযোগ রয়েছে। তাই খরচটা ব্যালান্স করার অনুরোধ জানাচ্ছি। তাছাড়া বিভিন্ন রোগের ক্ষেত্রে ও প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা বাদ দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি। সর্বোপরি ব্যবসা ছাড়াও সেবার দিকে বেশি মনোযোগ দিতে হবে।

শিপ আইচি মেডিকেল সার্ভিসেস লিমিটেডের নির্বাহী চেয়ারম্যান হিরোইউকি কোবায়াশির সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, জাইকা বাংলাদেশের প্রধান প্রতিনিধি হিতোশি হিরাতা, জাপানের অর্থনীতি বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের পরিচালক কেনতারো কিশিমাতো, শিপ আইচি মেডিকেল সার্ভিসেস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মো. মোয়াজ্জেম হোসেনসহ প্রমুখ।

আরও পড়ুন

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়