logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

রাতে মা গেলেন গল্প করতে, বাড়িতে একা পেয়ে মেয়েকে ধর্ষণ

symbol image
প্রতীকী ছবি

রংপুরের বদরগঞ্জে ৬ষ্ঠ শ্রেণির স্কুল শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক রায়হানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে রংপুরের বদরগজ্ঞ উপজেলার বালুয়াভাটা আদর্শপাড়া গ্রামে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাওলাদার।

পুলিশ জানায়, ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর বাবা জাহিদুল ইসলাম বদরগজ্ঞ পৌর শহরের বালুয়া ভাটা আদর্শপাড়া গ্রামে কবিরুল হকের বাসা ভাড়া নিয়ে সে পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করতো। ওই বাসার মালিক কবিরুল হকের ছেলে রায়হান হক। সে তার বাবার সাথে গালামালের দোকানে দোকানদারী করে। শনিবার রাত ৮ টার দিকে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর মা পাশের বাড়িতে বেড়াতে যায়।

এ সময় সে অন্য একটি ঘরে বসে পড়াশোনা করছিলো। এ সময় ধর্ষক রায়হান ঘরে এসে স্কুল ছাত্রীকে তার মা ডাকে বলে তার ঘরে নিয়ে গিয়ে দরজা বন্ধ করে ধর্ষণ করে। মেয়েটি জ্ঞান হারিয়ে ফেললে ধর্ষক রায়হান মেয়েটিকে তার ঘরেই ফেলে পালিয়ে যায়। পরে অসুস্থ অবস্থায় ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে বদরগজ্ঞ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর বাবা জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে রোববার সকালে বদরগজ্ঞ থানায় মামলা দায়ের করে। পুলিশ ধর্ষক রায়হানকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে।

এ ব্যাপারে বদরগজ্ঞ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাওলাদার জানান, এ ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীর বাবা জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। সেখানে ডাক্তারি পরীক্ষাসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেয়া হবে।

আরও পড়ুনঃ

ধর্ষকের সর্বোচ্চ সাজা চেয়ে রাস্তায় শিক্ষার্থীরা

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, দুইজনের যাবজ্জীবন

জিএ/এম

RTV Drama
RTVPLUS