• ঢাকা সোমবার, ১৬ জুলাই ২০১৮ | ০১ শ্রাবণ ১৪২৫

তীরে এসে তরী ডুবলো কোহলিদের

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ১৫ এপ্রিল ২০১৮, ২১:০৩ | আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০১৮, ২১:১২
আর যদি একটা ওভার থাকতো তাহলেই ম্যাচটা জিতেই জেতাম। শুরুর লাইনটা কাল্পনিক হলেও কোহলি-ভিলিয়ার্সরা ড্রেসিং রুমে বসে হয়তো এটাই ভাবছেন। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুতে এত বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যান থাকতে মাত্র ১৯ রানের হার।

এর আগে দু’দলের ১৬ বারের দেখায় ৮ ম্যাচে জয় পায় রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর, বিপরীতে ৭ ম্যাচে জিতেছিল রাজস্থান রয়্যালস। আজকের ম্যাচ শেষে সমান হয়ে গেলো দু’দলের জয়ের রেকর্ড।

চলতি আসরের ১১তম ম্যাচে বেঙ্গালুরুতে টস জিতে রাজস্থান রয়্যালসকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছিল স্বাগতিকরা।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : নায়ক হয়ে ফিরুক মোস্তাফিজ
--------------------------------------------------------

রাজস্থানের দুই ওপেনার দেখে শুনে ব্যাট চালালেও মাত্র ১১ রানে যুগেন্দ্র চাহালের বলে কাটা পড়েন অর্চি শর্ট। আরেক ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে ২০ বলে ৩৬ রান করে আউট হলেও রানের চাকা থামতে দেননি সাঞ্জু স্যামসন। ওয়ানডাউনে ব্যাট করতে নেমে খেলেন ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত। ৮ রানের জন্য চলতি আসরের প্রথম শতক মিস করলেও তার ব্যাটে আসে ৪৫ বলে ৯২ রান। ২৩ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের ইনিংসে ছিল ১০টি ছয় আর একটি চারের মার।

বেঙ্গালুরুর হয়ে দুই উইকেট করে নেন ক্রিস ওকস আর যুগেন্দ্র চাহাল। ২০ ওভার শেষে রাজস্থানের সংগ্রহ ৬ উইকেট হারিয়ে ২১৭ রান।

রাজস্থানের দেয়া রানের পাহাড় টপকাতে গিয়ে শুরুতেই ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বেঙ্গালুরু। মাত্র ৪ রান করেই আউট হন ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। এরপর কুইন্টন ডি কক, কোহলি, মন্দিপ সিংদের ব্যাটে বিরাট ইনিংস না আসলেও প্রায় জয়ের কাছে গিয়ে হারতে হয় স্বাগতিক দলের।

কোহলি খেলেন সর্বোচ্চ ৫৭ রানের ইনিংস। তার ৩০ বলের ইনিংসে ছিল ছয়টি ৪ আর একটি ৬। মন্দিপ সিংয়ের ব্যাটে আসে ২৫ বলে ৪৭ রান। শেষদিকে ওয়াশিংটন সুন্দরের ব্যাটে ১৯ বলে ৩৫ রান এলেও বেঙ্গালুরুর ইনিংসটা শেষ হয়নি সুন্দরভাবে। হারতে হয়েছে ১৯ রানে। ২০ ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে তুলে ১৯৮ রান।

রাজস্থানের হয়ে শ্রেয়াশ গোপাল নেন ২২ রানে সর্বোচ্চ ২ উইকেট। ম্যাচ সেরার পুরস্কার উঠে ৯২ রানে অপরাজিত ইনিংস খেলা সাঞ্জু স্যামসনের হাতে।

আরও পড়ুন :

এমআর/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়