• ঢাকা বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮ | ১২ বৈশাখ ১৪২৫

প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্প অনুপযুক্ত: জেমস কমি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৩:০১ | আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০১৮, ১৩:১১
সাবেক এফবিআই প্রধান জেমস কমি বলেছেন, নারীদের ‘মাংসপিণ্ড’ বলে মনে করা ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য ‘নৈতিকভাবে অনুপযুক্ত।’ গতকাল রোববার মার্কিন গণমাধ্যম এবিসি নিউজের সাক্ষাৎকারভিত্তিক জনপ্রিয় ২০/২০ অনুষ্ঠানে বিশেষ সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেন। খবর বিবিসির।

জেমস কমিকে গেলো বছর মে মাসে এফবিআইয়ের পরিচালক পদ থেকে বহিষ্কার করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ২০১৬ সালের মার্কিন নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ নিয়ে তদন্ত করছিলেন কমি। বহিষ্কারের পর এই প্রথম গণমাধ্যমের কাছে মুখ খোলেন তিনি।

--------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : ব্যাগেজ বেল্টে চড়ে জরিমানা গুণলেন নারী!
--------------------------------------------------------

অনুষ্ঠানটির উপস্থাপক জর্জ স্টেফানিওপোলস এফবিআইয়ের সাবেক পরিচালককে প্রশ্ন করেন, ‘আপনি কি মনে করেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট পদের জন্য অনুপযুক্ত ?’

কমি বলেন, ট্রাম্প মানসিকভাবে অযোগ্য কিংবা তার স্মৃতিভ্রংশ হয়েছে এরকম কথায় আমি বিশ্বাস করি না। আমি এটাও মনে করি না, চিকিৎসাশাস্ত্র মতে তিনি অযোগ্য। আমি মনে করি নৈতিকভাবে তিনি প্রেসিডেন্ট হওয়ার যোগ্য নয়। 

এফবিআইর সাবেক পরিচালক আরও বলেন, ‘আমাদের প্রেসিডেন্ট হবেন এমন একজন, যিনি দেশের মূলধারার মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হবেন। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সততার পথে চলা। প্রেসিডেন্ট এটি রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছেন।’ তিনি এবিসি নিউজকে আরও বলেন, ট্রাম্প অনবরত মিথ্যা বলেন।

তবে ট্রাম্পকে ইমপিচ করে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরানোর ব্যাপারেও তিনি একমত নন। ২০২০ নির্বাচনে ভোটের মাধ্যমে ট্রাম্পের প্রতি জনগণের অসমর্থন ব্যক্ত করার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন তিনি।    

জেমস কমির এই সাক্ষাৎকার প্রচারের পর পরই ডোনাল্ড ট্রাম্পের দল রিপাবলিকান পার্টির জাতীয় কমিটির পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দেয়া হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, জেমস কমি তাঁর বইয়ের বিক্রি বাড়ানোর জন্য যা তা বলছেন।

সাক্ষাৎকারটি সম্প্রচার হওয়ার কয়েকঘণ্টা আগেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কমিকে মিথ্যার দায়ে অভিযুক্ত করেছেন। সাক্ষাৎকারের পর ট্রাম্প তাঁর টুইটে বলেন, কমি সব সময়ই হতাশ, (তিনি স্মার্ট না)। ইতিহাসের সবচেয়ে বাজে এফবিআই পরিচালকের জায়গায় তার স্থান হবে।

এফবিআইর সাবেক এই পরিচালকের লেখা বই ‘এ হাইয়ার লয়ালটি—ট্রুথ, লাইজ অ্যান্ড লিডারশিপ’ খুব শিগগিরই বাজারে আসছে।

আরও পড়ুন :

কেএইচ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়