logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর ২০১৯, ৮ কার্তিক ১৪২৬

‘লাকি সেভেনে’ শেষ হলো গেইলের বিশ্বকাপ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৪ জুলাই ২০১৯, ১৬:৩৭ | আপডেট : ০৪ জুলাই ২০১৯, ১৬:৫৮
AFgvWI Cwc 2019
ক্রিস গেইল || ছবি- সংগৃহীত
সেভেনকে সৌভাগ্যের প্রতীক বলা হয়। কিন্তু ‘ইউনিভার্সেল বস’ ক্রিস গেইল হয়তো কখনোই চাননি জীবনের শেষ বিশ্বকাপ ম্যাচের যবনিকাটা লাকি সেভেনে শেষ হোক। জ্যোতিষ শাস্ত্রে সাত সংখ্যাটাকে যতই সৌভাগ্যের প্রতিক বলা হোক না কেন ক্রিকেট মাঠে সাতের আর কতটুকু মূল্য। বর্তমান ক্রিকেটে যখন আকছারই ডাবল সেঞ্চুরি হয়ে যায়, সেখানে জীবনের শেষ বিশ্বকাপ ম্যাচটা সোনার আলোয় রাঙাতে পারেননি ক্যারবীয় দানব। দৌলত জাদরানের বলে যখন প্যাভালিয়ানের পথ ধরেন তিনি তখন নামের পাশে ১৮ বলে সাত রান। চার মেরেছেন মাত্র একটি।  

২০০১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে অভিষেক। দুই বছর পর দক্ষিণ আফ্রিকায় নিজের প্রথম বিশ্বকাপে অংশ নেন ক্রিস গেইল। ২০০৭, ২০১১, ২০১৫ ও ২০১৯ সব মিলিয়ে মোট পাঁচ বিশ্বকাপে খেলেছেন। দিনের পর দিন নিজেকে পরিণত করেছেন বিশ্বের অন্যতম ভয়ঙ্কর ব্যাটসম্যান হিসেবে।

২০০৩ সালের পর বিশ্বকাপ ক্যারিয়ারে মোট ২৫ ম্যাচ খেলেছেন ১ হাজার ৮৬ রান তুলেছেন গেইল। তুলেছেন ১৫ উইকেট। 

২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে ডাবল সেঞ্চুরি করেন গেইল স্ট্রম খ্যাত এই তারকা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাত্র ১৪৭ বলে ২১৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। ১৬টি ছক্কা ও ১০টি চার ছিল ওই ইনিংসে।

বিশ্বকাপ ক্যারিয়ারে দুটি সেঞ্চুরি ও ছয়টি অর্ধশতক রয়েছে জ্যামাইকায় জন্ম নেয়া এই ব্যাটসম্যানের। বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৪৯ ছক্কার রেকর্ডের মালিক। রয়েছে ২৬টি ক্যাচ। 

এবারের বিশ্বকাপটা মোটেও ভালো যায়নি ক্যারিবীয় তারকার জন্য। ৯ ম্যাচে ২৪২ রান করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। ৩৪.৫৭ গড়ে অর্ধশতক তুলেছেন দুটি।

চলতি বিশ্বকাপে আগেই বিদায় নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে বৃহস্পতিবার নিজেদের শেষ ম্যাচে মাঠে নামে উইন্ডিজরা। এভিন লুইসকে নিয়ে ব্যাট হাতে লিডসের হেডিংলি স্টেডিয়ামের ২২ গজে এসেছিলেন গেইল।

আফগানদের দুই বোলার মুজিব উর রহমান ও দৌলত জাদরানের ১৮ বল খেলেন গেইল। চার মেরেছেন একটি। সব মিলিয়ে ৭ রান করে বিদায় নিয়েছেন বাম-হাতি এই ওপেনার। এরই সঙ্গে শেষ হলো স্বঘোষিত ইউনিভার্সেল বসের বিশ্বকাপ ক্যারিয়ার।

ওয়াই/জেবি

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়