logo
  • ঢাকা শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

ভারত বাধার সামনে বাংলাদেশ

অস্তিত্বের লড়াইয়ে টাইগারদের ভাবনায় পিচ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০১ জুলাই ২০১৯, ২২:১০ | আপডেট : ০১ জুলাই ২০১৯, ২২:২৪
BANvIND- rtvonline
ছবি- সংগৃহীত
বিশ্বকাপে বাঁচা-মরার লড়াইতে আগামীকাল মঙ্গলবার ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। বার্মিংহামের এজবাস্টনে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বেলা সাড়ে ৩টায়। টাইগারদের জন্য ম্যাচটি টিকে থাকার হলেও, ভারতের জন্য এটি সমালোচনা মাড়িয়ে শেষ চার নিশ্চিত করার ম্যাচ।

বিশ্বকাপের শেষ পর্যায়ে এসে জমে উঠেছে পয়েন্ট টেবিলের সমীকরণ। একমাত্র অস্ট্রেলিয়া ছাড়া কেউই শেষ চারের জায়গা নিশ্চিত করতে পারেনি। তবে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে ভারত ও নিউজিল্যান্ড। লড়াইতে এখনো টিকে আছে ইংল্যান্ড, পাকিস্তান ও বাংলাদেশ।

এমন অবস্থানে থেকে টাইগারদের মুখোমুখি হচ্ছে ভারত। সাত ম্যাচের পাঁচটি জয়, একটি হার ও একটি পরিত্যক্তে মোট ১১ পয়েন্ট আছে বিরাট কোহলিদের। বাকি দুই ম্যাচ থেকে এক পয়েন্ট পেলেই নিশ্চিত হবে শেষ চার।

শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে আহত ভারত। সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হচ্ছে রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা। বিশেষত ইংল্যান্ড ম্যাচে শেষ দিকে জয়ের জন্য কোনও চেষ্টা করতে দেখা যায়নি ধোনি-যাদবকে। বাংলাদেশ ম্যাচ তাই সমালোচকদের মুখ বন্ধ করার সুযোগ হিসেবে নিচ্ছে কোহলি বাহিনী।

এ ম্যাচের আগে অবশ্য ব্যাটিং-বোলিং নিয়ে নির্ভার ভারত। আসরে তিনটা সেঞ্চুরি করে নিজের রান ক্ষুধা জানান দিয়েছেন রোহিত শর্মা। টানা পাঁচটি অর্ধশতে ফর্মের মাত্রা বুঝিয়েছেন বিরাট কোহলি। রানের মধ্যে আছেন মহেন্দ্র সিং ধোনিও। প্রথম দিনে নেমেই রান পেয়েছেন রিশাভ প্যান্ট।

এছাড়া স্মরণকালের সেরা পেস আক্রমণ নিয়ে প্রতিপক্ষকে নাস্তানাবুদ করে আসছে ভারত। ডেথ ওভারে জাসপ্রিত ভুমরাহ’র ইয়র্কার ব্যাটসম্যানদের কাছে ধাঁধাঁ হয়ে উঠেছে। বাউন্স আর সুইং দিয়ে উইকেট শিকারে অগ্রগামী মোহাম্মদ শামী। স্পিনে চায়নাম্যান কেদার যাদবের ভেলকি বেশ কয়েকবার দেখেছে বিশ্বকাপ। সব মিলিয়ে জয় তুলে নেবার মত সব উপাদানই হাজির ভারতীয় শিবিরে।

বিপরীতে কঠিন বাস্তবতার সামনে এসে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। হারলেই বিদায় ঘণ্টা বাজবে এবারের আসর থেকে। এই শঙ্কা আর চাপ নিয়ে ভারত বাধা টপকানো কৌশল আঁটতে হচ্ছে টাইগারদের।

তামিম ইকবালের ব্যাট এখনো প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি টাইগার ভক্তদের। এ ম্যাচ তাই হতে পারে সেরা মঞ্চ। লিটনের কাছ থেকেও এ ম্যাচে প্রত্যাশার মাত্রা বেশি বাংলাদেশের। রানের মধ্যে থাকা মুশফিকুর রহীমের কাছ থেকে অভিজ্ঞতার প্রদর্শনী দেখতে চাইবে টাইগার সমর্থকরা।

তবে ভারতীয়দের পরিকল্পনা নস্যাৎ করার মূল কারিগরের ভূমিকা আরও একবার পালন করতে হবে সাকিব আল হাসানকে। দুই সেঞ্চুরি আর তিনটি হাফ-সেঞ্চুরি তুলে, আসরের তৃতীয় সর্বোচ্চ রানের মালিক টাইগার অলরাউন্ডার। তাকে থামাতে আলাদা পরিকল্পনা আঁটবে ভারত। সেটা ছেঁদ করেই দলকে এগিয়ে নিতে হবে সাকিবকে।

ইনজুরি কারণে এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে অনিশ্চিত মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার জায়গার তাই ব্যাট হাতে নামতে পারেন সাব্বির রহমান। মোসাদ্দেক হোসেনর পাশে ডেথ ওভারে রান তোলার কারিগরের ভূমিকা নিতে হবে সাব্বিরকে।

তবে বাংলাদেশের ভাবনায় পেস বোলিং। মুস্তাফিজুর রহমানের কাটার খুবই চেনা হয়ে উঠেছে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের কাছে। মাশরাফি-সাইফউদ্দিনের গতি প্রতিপক্ষকে ভড়কে দেবার মতো না। সেখানে লাইন-লেন্থ বজায় রাখাটাই হবে আসল কাজ।

এরপর রয়েছে এজবাস্টনের পিচ। হাই-স্কোরিং রেকর্ডের জন্য বিখ্যাত এই মাঠ এবারের বিশ্বকাপেও ধরে রেখেছে নিজের ঐতিহ্য। আরও একটি তিন শতাধিক রানের ম্যাচ উপহার দেবার অপেক্ষায় বার্মিংহামের এই মাঠ।

তাই ভারতের লম্বা ব্যাটিং লাইনকে থামাতে বিশেষভাবে ভাবতে হচ্ছে মাশরাফিকে। এ মাঠে কার্যকরী হতে পারে সুইং বোলার। আর বাংলাদেশ স্কোয়াডে একমাত্র সুইং বোলার আবু জায়েদ রাহী। বিশ্বকাপে এখনো বল হাতে নিতে না পারা রাহীকে নিয়ে বাজি ধরবে কি টাইগাররা?

ভারতের সম্ভাব্য একাদশ: লোকেশ রাহুল, রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), রিশভ প্যান্ট, মহেন্দ্র সিং ধোনি, কেদার জাদব, হার্ডিক পান্ডে, ভুবনেশ্বর কুমার, রবীন্দ্র যাদেজা, মোহাম্মদ শামী ও জাসপ্রিত বুমরাহ।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ: তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেট-রক্ষক), লিটন দাস, মাহমুদুল্লাহ/সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, মেহেদী হাসান, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন/আবু জায়েদ রাহী, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), মুস্তাফিজুর রহমান।

অগ/এমআর

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়