logo
  • ঢাকা শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৬ আশ্বিন ১৪২৬

লর্ডসে শনিবার ট্র্যান্স-তাসমানদের লড়াই

অনলাইন ডেস্ক
|  ২৮ জুন ২০১৯, ১৮:২১ | আপডেট : ২৮ জুন ২০১৯, ১৮:৪৮
AUSvNZ- rtvonline
ছবি- সংগৃহীত
বিশ্বকাপের হাই ভোল্টেজ ম্যাচে শনিবার মুখোমুখি হবে তাসমান সাগরের দুই পাড়ের দুই দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। এখন পর্যন্ত বলা যায় দুই দলই একে অপরের শক্ত প্রতিপক্ষ। এই দুটি দলই খেলেছে গত বিশ্বকাপের ফাইনালে। 

লর্ডসে দুই ফাইনালিস্টের ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়। আগেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে ফেলেছে অজিরা। সাত খেলায় ছয় জয়ে সেমি নিশ্চিত করা অজিদের হারিয়েই শেষ চার নিশ্চিত করতে চাইবে কিউইরা।

ঐতিহ্যের দ্বৈরথটা পুরোনো। বলাই যায়, বাইশ গজের লড়াইতেও ছাড় দিবে না একে অপরকে। মঞ্চটা যদি হয় বিশ্বকাপের, তাহলে তো কথাই নেই। দুই দলের লড়াই হয়তো শনিবার তাসমান সাগরের সমস্ত উত্তাল তরঙ্গকে টেনে নিয়ে আসবে লন্ডনের লর্ডসে।

লর্ডসে বারুদে উত্তাপের আঁচ। আগুনে ঘি ঢেলে দিয়েছে গত আসরের ফাইনাল। কিউইদের হারিয়ে পঞ্চম শিরোপা উঁচিয়ে ধরা অজিদের সামনে প্রতিশোধের আগুনে পুড়ছে নিউজিল্যান্ড।

প্রতিবেশিদের হারাতে পারলে পুরোনো ক্ষত কিছুটা হলেও শান্তির প্রলেপ পড়বে। একই সঙ্গে দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ চারে পা রাখবে ব্ল্যাক-ক্যাপসরা। তবে বিশ্বকাপে দুই দলের পরিসংখ্যান এগিয়ে রাখছে পাঁচবারের বিশ্বকাপ জয়ীদের। অজিদের দশ জয়ের বিপরীতে নিউজিল্যান্ড জিতেছে তিনটিতে।

দুই দলের দুই মূল খেলোয়াড়ের নাম বলতে গেলে আসে কিউইদের মার্টিন গাপটিল আর অজিদের মিচেল স্টার্ক।

মার্টিন গাপটিল: নিউজিল্যান্ডের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অপরাজিত ছিলেন ৭৩ রানে। ২০১৩ সালেও লর্ডসে অপরাজিত শতরানের ইনিংস খেলেছিলেন এই কিউই ওপেনার। চলতি টুর্নামেন্টে তার ব্যাটে খুব বেশি রান না আসলেও এই ম্যাচটা হতে পারে নিজেকে ফিরে পাবার ম্যাচ।

মিচেল স্টার্ক: বাম-হাতি ফাস্ট বোলার চলতি বিশ্বকাপে এখনও উইকেট সংগ্রাহকের তালিকায় আছেন এক নম্বরে। ২০৫ বিশ্বকাপেও স্টার্ক নিয়েছিলেন ১৯ উইকেট। স্টার্ক ছাড়াও অ্যারন ফিঞ্চ আছে ব্যাট হাতে দুর্দান্ত ভূমিকায়।

নিউজিল্যান্ড: কেন উইলিয়ামসন (অধিনায়ক), টম ব্লান্ডেল (উইকেট-রক্ষক), ট্রেন্ট বোল্ট, কলিন ডি গ্র্যান্ডওম, লকি ফার্গুসন, মার্টিন গাপটিল, ম্যাট হেনরি, টম ল্যাথাম, কলিন মুনরো, জিমি নিশাম, হেনরি নিকোলস, মিচেল স্যান্টনার, ইশ শোধি, টিম সাউদি ও রস টেলর

অস্ট্রেলিয়া: অ্যারন ফিঞ্চ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা, স্টিভ স্মিথ, শন মার্শ, অ্যালেক্স ক্যারি (উইকেট-রক্ষক), মার্কাস স্টয়নিস, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল স্টার্ক, কেন রিচার্ডসন, প্যাট কামিন্স, জেসন বিয়ারেনডফ, নাথান কোল্টার-নাইল, অ্যাডাম জম্পা, নাথান লিওন।

এমআর/পি

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়