logo
  • ঢাকা রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬

ইংল্যান্ডের হারে বাংলাদেশেরই লাভ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৫ জুন ২০১৯, ২৩:১৫ | আপডেট : ২৬ জুন ২০১৯, ০৯:০০
Eng vs Aus
ছবি- সংগৃহীত

এবারও হারল ইংল্যান্ড। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে হেরে পূর্ণ করল ১৯৯২ বিশ্বকাপের পর টানা চার পরাজয়। ২০০৩, ২০০৭, ২০১৫ এবং ২০১৯ বিশ্বকাপ। ১৯৭৫ সালের বিশ্বকাপে অজিরাই জিতেছিল, এরপর ’৭৯ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড, ’৮৭ বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়া আর ’৯২ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড।

আজকের হারে বাংলাদেশেরই লাভ হলো। টাইগারদের সেমি-ফাইনালে যাওয়ার সমীকরণ কিছুটা হালকা হলো বটে। ইংলিশরা যদি আজ জিতেই যেত তাহলে বাংলাদেশের সেমির অংকটা আরও কঠিন হয়ে যেত পরের দুই ম্যাচে জিতলেও। এখন আপাতত ভারত, পাকিস্তানকে হারাতে হবে। বাকিটা পরে হিসেব করা যাবে।

লর্ডসে টস জিতে ইংলিশ অধিনায়ক সিদ্ধান্ত নেন আগে ফিল্ডিং করার। কম রানের ফাঁদে ফেলার কাজটা ভালোমতোই করেছিল জোফরা আর্চার, ক্রিস ওকসরা।

অজি দুই ওপেনারের জুটি থেকে আসে ১২৩ রান। ওয়ার্নারের ৫৩ রানের বিদায়ে অস্ট্রেলীয়দের প্রথম ধাক্কা। উসমান খাজা-অ্যারন ফিঞ্চ জুটি সামাল দেন ভালোমতোই।

ফিঞ্চ করেন বরাবর একশ রান। চলতি বিশ্বকাপে নিজের দ্বিতীয় শতক তুলেই আর্চারের বলে ফেরেন অজি অধিনায়ক। দলীয় ১৮৬ রানে ফিঞ্চের বিদায়ের পর ভেঙে পড়ে অজি ব্যাটিং লাইন-আপ।

স্টিভ স্মিথ আর অ্যালেক্স ক্যারি করেন সমান ৩৮ রান করে। তাতে ৫০ ওভার শেষে ৭ উইকেটে ২৮৫ রান তুলে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। আর্চার নেন ২উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন জোফরা আর্চার, মার্ক উড, বেন স্টোকস ও মঈন আলী।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে অস্ট্রেলীয় পেসারদের গতির সামনে নত হতে হলো ইংলিশ ব্যাটারদের। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই ওপেনার জেমস ভিন্সের উইকেট হারায় ইংল্যান্ড।

টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যানই পার হতে পারেনি কুড়ি রানের কোটা।  মাঝে বেন স্টোকসের ৮৯ রানের লড়াকু ইনিংস ক্ষণিকের স্বপ্ন দেখালেও সেটি ধরে রাখা যায়নি শেষ পর্যন্ত।

৪৪ ওভার ৪ বল পর্যন্ত ব্যাট করে ২২১ রানেই সব উইকেট হারিয়ে বসে এবারের বিশ্বকাপের সবচেয়ে ফেভারিট দলটা।

অজিদের হয়ে বেহেনড্রফ নেন ৫ উইকেট, ৪টি নেন মিচেল স্টার্ক ও ১ উইকেট নেন মার্কাস স্টয়নিস।

৬৪ রানের জয়ে অজিরা নিশ্চিত করল সেমি-ফাইনাল। সাত ম্যাচে ৬ ম্যাচ জিতে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে উঠে গেল ১২ পয়েন্ট নিয়ে।

 

এমআর/এসএস

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়