logo
  • ঢাকা শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬
evaly

ইংলিশ পেসারদের তোপে নাকাল ক্যারিবীয়রা

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৪ জুন ২০১৯, ১৮:৫৬ | আপডেট : ১৪ জুন ২০১৯, ১৮:৫৮
ইনিংসের তৃতীয় ওভারে মোটে ২ রান করে এভিন লুইসের বিদায়। ক্রিস গেইলের শুরুটা ধীরে হলেও পাঁচটি চার আর ১ ছয়ে মিলে ৪১ বলে ৩৬ রান করে পথ ধরেন সাজঘরের। শাই হোপও এদিন নিরাশ করেছেন ক্যারিবীয়দের।

উপরে শিমরন হেটমেয়ারের ছবিটার মতোই ভেঙে পড়েছে ক্যারিবীয়দের ইনিংস। এমন দুর্দশার পেছনে দায়ী আরেক ক্যারিবীয় বোলার জোফরা আর্চার।

উইন্ডিজদের ভঙ্গুর ব্যাটিং লাইন-আপকে খানিক টেনে ধরেন নিকোলাস পুরান আর শিমরন হেটমেয়ার। মাত্র ৫৫ রানে যেখানে ৩ উইকেট পড়ে যায়, সেখান থেকে এই দুই জন টেনে আনেন ১৪৪ রান পর্যন্ত। চতুর্থ উইকেট জুটি থেকে আসে ৮৯ রান।

সাউদাম্পটনের রোজ বোলে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস জিতে ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগ্যান টস জিতে সিদ্ধান্ত নেন বোলিংয়ের। আগে বোলিং নেয়ার কারণ অবশ্য, আগের দিন পিচ কাভারে ঢাকা থাকা আর আবহাওয়া। মরগ্যানের প্ল্যান মতোই হয়েছে সব।

হেটমেয়ারকে ৩৯ রানের মাথায় ফেরান জো রুট। রুটের পরের ওভারেই ফেরেন জেসন হোল্ডার। এর মাঝেই বিশ্বকাপে নিজের প্রথম অর্ধশতক তুলে নেন নিকোলাস পুরান।

দুই ছয় আর এক চারে আন্দ্রে রাসেল জ্বলে ওঠার আভাস দিলেও উডের বলে তালুবন্দি হোন ক্রিস ওকসের। ২১ রান করে ফেরেন সাজঘরে।

দলীয় ২০২ রানের মাথায় নিকোলাস পুরানকে ফেরান আরেক ক্যারিবীয় জোফরা আর্চার। পুরানকে ৬৩ রানে ফিরিয়ে বড় সংগ্রহের পথটা বন্ধ করে দেন আর্চার।

পুরান ছাড়াও আর্চারের শিকার কার্লোস ব্রেথওয়েট (১৪) আর শেলডোন কটরেল। এ যেন নিজেদের প্রতিপক্ষ নিজেরাই। ইংলিশ পেসারদের দাপটে শেষ পর্যন্ত ৪৪ ওভার ৪ বলে ২১২ রানেই অলআউট হয়ে যায় ক্যারিবীয়রা। 

ইংল্যান্ডের হয়ে তিনটি করে উইকেট নেন জোফরা আর্চার, মার্ক উড, দুটি উইকেট নেন জো রুট আর একটি করে উইকেট নেন ক্রিস ওকস ও লিয়াম প্লাঙ্কেট।

এমআর/পি

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়