logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬
evaly

দীর্ঘ সময় রোজা রেখে খেলেছেন মুশফিক-রিয়াদ-মিরাজ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৩ জুন ২০১৯, ১৪:৩১ | আপডেট : ০৩ জুন ২০১৯, ১৫:০৪
ছবি- সংগৃহীত
২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে গ্রায়েম স্মিথ নেতৃত্বাধীন দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দেয়া বাংলাদেশ। একযুগ আগের সেই জয়কে ‘আপসেট’ অ্যাখ্যা দিলেও রোববারের ম্যাচটিকে স্বাভাবিক জয় হিসেবে দেখছেন ক্রিকেট বোদ্ধারা। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ২১ রানের জয় তুলে নেয়ার পর মাশরাফি বিন মুর্তজা জানান, গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে একাদশে থাকা তিন জন রোজা রেখেই মাঠের লড়াইয়ে নেমেছিলেন।

evaly
সাংবাদিকদের টাইগার অধিনায়ক জানিয়েছেন, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও মেহেদী হাসান মিরাজ রোজা রেখেই দলের হয়ে খেলেছেন। আর এ জন্য তাদের ধন্যবাদও জানিয়েছেন দলপতি। মাশরাফি বলেন, ‘মুশফিক, রিয়াদ ও মিরাজকে নিয়ে আমি গর্বিত যে তারা রোজা রেখে ভালো খেলেছে।’

লন্ডনের কেনিংটন ওভালে এদিন চার নম্বরে ব্যাট করতে নামেন মুশফিক। প্রায় দেড় ঘণ্টা ক্রিজে থেকে ৮০ বলে ৭৮ রানের ঝকঝকে এক ইনিংস উপহার দেন ডান-হাতি এই ব্যাটসম্যান।  অন্যদিকে ৫০ ওভার অর্থাৎ ৩০০ বল উইকেট রক্ষকের ভূমিকা পালন করেন মুশি।

বাংলাদেশের জার্সিতে ৬ নম্বরে ব্যাট করতে নেমেছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ৩৩ বলে ৪৬ রানের ঝড়ো ইনিংসটি খেলেন রিয়াদ। তিনটি চার ও একটি ছক্কায় বাংলাদেশকে বড় স্কোর গড়তে সহায়তা করেন এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।

অন্যদিকে ব্যাট হাতে ৩ বলে একটি চার ও একটি সিঙ্গেল নিয়ে ৫ রান করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১০ ওভার বল করে মাত্র ৪৪ রানে এক উইকেট তুলেছেন এই অফ স্পিনার। দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ের পাশাপাশি একটি ক্যাচও ধরেন মিরাজ। 

ইংল্যান্ডে প্রায় ১৯ ঘণ্টা রোজা রাখার পর এমন ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন মিরাজ। জানালেন, দীর্ঘ সময় রোজা রেখেও এই জয়ের পর কষ্টটা তেমন অনুভূত হয়নি।  তিনি বলেন, ‘আমি বলবো আল্লাহর অশেষ রহমত ছিল আমাদের ওপরে। কারণ রমজান মাসে আমাদের জীবনে রোজাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আমার মনে হয় আল্লাহপাকই আমাদের জন্য কাজটা আরও সহজ করে দিয়েছেন। আমাদের দলে, মুশফিক ভাই, রিয়াদ ভাই, আমি এবং খেলার বাইরের আরও ২ জন আমরা যারা রোজা ছিলাম, আমাদের কাছে কষ্টটা ওরকম মনে হয়নি। হ্যাঁ, খুব ভালো লাগছে যে আমরা রোজা রেখেছি। মনে অনেক শান্তির একটা অনুভূতি আসছে।’  

২১ বছর বয়সী এই স্পিনার জানাচ্ছেন প্রথম ম্যাচে জয় পেয়ে দলের আত্মবিশ্বাস আরও বেড়েছে। মিরাজ বলেন, ‘আমার খুব ভালো লাগছে যে প্রথম ম্যাচটায় আমরা জয় পেয়েছি। সবচেয়ে বড় কথা, আমাদের জন্য প্রথম ম্যাচটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল যেটা দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে জিতেছি। এই জয়ে আমাদের আত্মবিশ্বাস অনেক বেড়ে গেছে। পরবর্তী ম্যাচগুলোতে এটা অনুপ্রেরণা যোগাবে। আল্লাহর অশেষ রহমতে আমরা সবাই খুব ভাল খেলতে পেরেছি। সবাই নিজের কাজটা ঠিকভাবে করতে পেরেছে। অবশ্যই আমরা চেষ্টা করব এটা ধরে রাখার।’

ওয়াই

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়