logo
  • ঢাকা সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬

প্রত্যাশিত স্কোর পায়নি ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ৩০ মে ২০১৯, ১৯:২৭
দ্বাদশ বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ, স্বাগতিক ইংল্যান্ডের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা। গ্যালারিতে উপস্থিত প্রায় ২৩ হাজার দর্শকের সঙ্গে কোটি কোটি ক্রিকেট সমর্থকের চোখ লন্ডনের ওভালে। যা ঘটবে সবই এই বিশ্বকাপের প্রথম আর তার সাক্ষী হতে কে না চাইবে! 

আসরের প্রথম টস ভাগ্যে জিতেছে দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি। টস জিতে প্রোটিয়া অধিনায়ক ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগ্যানকে। 
ফিল্ডিংয়ে নেমে ইতিহাসে জায়গা করে দেন প্রোটিয়া দলপতি। গত ১১টি আসরে যা ঘটেনি সেটাই ঘটিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকান অধিনায়ক। ৪৪ বছরের বিশ্বকাপ ইতিহাসে আসরের প্রথম ওভার করেননি কোনও স্পিনার। আজ সেই ইতিহাসে নতুন করে নাম লেখান ইমরান তাহির।
 বোলিং করতে এসে নিজের দ্বিতীয় বলেই তুলে নেন ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারেস্ট্রোর উইকেট। কুইন্টন ডি ককের হাতে ক্যাচ দিয়ে শূন্য রানেই সাজঘরে ফেরেন বেয়ারেস্ট্রো।

এবারের বিশ্বকাপের প্রথম বাউন্ডারি আসে জো রুটের ব্যাটে। প্রোটিয়া পেসার লুঙ্গি নিগিদির করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে প্রথম চার। প্রথম চার খুব দ্রুত আসলেও ছয়ের জন্য ৬ অপেক্ষা করতে হয় ২৫ ওভার পর্যন্ত। ইনিংসের ২৫ তম ওভারের দ্বিতীয় বলে নিগিদিকেই প্রথম ওভার বাউন্ডারি হাঁকান এউইন মরগ্যান।

বিশ্বকাপের প্রথম ফিফটি আসে জেসন রয়ের ব্যাটে। অর্ধশতক পূর্ণ করে বেশিক্ষণ টিকেননি এই ইংলিশ ওপেনার। ৫৩ বলে ৫৪ রান করে বিদায় নেন অ্যান্ডি ফেহলুকায়োর বলে ডু প্লেসিকে ক্যাচ দিয়ে। রয়ের পরই বিদায় নেন জো রুট। তার ব্যাটেও আসে অর্ধশতকের ইনিংস (৫১)। 

ইংলিশ অধিনায়ক মরগ্যান খেলেন ৬০ বলে ৫৭ রানের ইনিংস। মাঝে মঈন আলী (৩), জস বাটলাররা (১৮) কম রানে সাজঘরে ফিরলেও বেন স্টোকস খেলেন ৭৯ বলে ৮৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। তার ইনিংসে ছিল ৯টি বাউন্ডারি।

ইংলিশদের ব্যাট টপ অর্ডারের ব্যাট করার ধরন দেখে মনে হয়েছিল বড় সংগ্রহের দিকেই এগুচ্ছে দলটি। যদিও শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভার শেষে স্বাগতিকদের  সংগ্রহ দাঁড়ায় ৮ উইকেটে ৩১১ রান।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৩ উইকেট নেন নিগিদি। ২টি করে উইকেট নেন ইমরান তাহির ও কাগিসো রাবাদা আর ১ উইকেট নেন অ্যান্ডি ফেহলুকায়ো।

ইংল্যান্ড একাদশ 

জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, এউইন মরগ্যান (অধিনায়ক) জস বাটলার (উইকেট-রক্ষক), বেন স্টোকস,  মঈন আলী, ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাংকেট, জোফরা আর্চার ও আদিল রশিদ।

দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ 

হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেট-রক্ষক), এইডেন মার্করাম, ফাফ ডু প্লেসি (অধিনায়ক), রাসি ভ্যান ডুসেন, জেপি ডুমিনি, অ্যান্ডি ফেহলুকায়ো, ডওয়েন প্রিটোরিয়াস, কাগিসো রাবদা, লুঙ্গি নিগিদি ও ইমরান তাহির।

ওয়াই

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়