ইংল্যান্ড-দ. আফ্রিকা ম্যাচ দিয়ে পর্দা উঠছে বিশ্বকাপের

প্রকাশ | ২৯ মে ২০১৯, ২১:২২ | আপডেট: ২৯ মে ২০১৯, ২১:৩৫

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ছবি- সংগৃহীত

রাত পোহানোর অপেক্ষা। এরপরই শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের বিশ্বমঞ্চের দ্বাদশ আসর। শুরুর ম্যাচেই বৃহস্পতিবার লন্ডনে ওভালে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা। সাদা বলের ক্রিকেটে দীর্ঘদিন ধরে দুর্দান্ত খেলে আসা ইংল্যান্ড এবারের বিশ্বকাপে সবচেয়ে ফেভারিট দল। কম নেই দক্ষিণ আফ্রিকাও। তাদের মিশন এবার ‘চোকার্স’ অপবাদ ঘোচানোর।

বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় আর অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে যায় স্বাগতিক ইংল্যান্ড। অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা জয় পায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। পরিত্যক্ত হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটি।

স্বাগতিক ইংল্যান্ড মুখিয়ে আছে ওয়ানডে ক্রিকেটে ইনিংসে প্রথমবারের মতো ৫০০ রানের মাইলফলক ছুঁতে। গত বছর নটিংহ্যামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ছয় উইকেটে ৪৮১ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় ইংল্যান্ড। এবারের বিশ্বকাপে স্বাগতিকদের লক্ষ্য নিজেদেরও ছাড়িয়ে যাবার। এছাড়া একদিনের ক্রিকেটে এক নম্বরে আছে দলটি।

স্বাগতিকরা শেষ মুহূর্তে চমক দিয়েছে বার্বাডোজের জন্ম নেয়া ফাস্ট বোলার জোফরা আর্চারকে দলে নিয়ে।

বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচকে সামনে রেখে ইংলিশ অধিনায়ক এউইন মরগ্যান বলেন, আমরা নিজেদের নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী। গত দুই বছর ধরে আমরা যেভাবে খেলে আসছি তাতে এই বিশ্বাসটা এমনিই চলে আসে। আমাদের দলের সবারই আত্মবিশ্বাস আছে, তারা শতভাগ দিতে প্রস্তুত।

প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকাও সম্প্রতি দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে। ফাফ ডু প্লেসির নেতৃত্বে দক্ষিণ আফ্রিকা খেলছেও অসাধারণ। যদিও বিশ্বকাপের আগে দলটির তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স অবসরে যান। এছাড়াও কুইন্টন ডি কক রয়েছেন সেরা ফর্মে।

প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা দলে নিশ্চিতভাবে থাকছেন না পেসার ডেল স্টেইন। নিশ্চিত করেছেন দলটির প্রধান কোচ ওটিস গিবসন। আইপিএলে খেলার সময় কাঁধের চোট পান এই পেসার। স্টেইন ছাড়াও লুঙ্গি নিগিদি, কাগিসো রাবাদা প্রোটিয়া বোলিংয়ের সেরা অস্ত্র। ব্যাটিংয়ে হাশিম আমলা, ডেভিড মিলার, ডু প্লেসিরা আছেন নিজেদের সেরা ফর্মে।

সংবাদ সম্মেলনে প্রোটিয়া অধিনায়ক ডু প্লেসি বলেন, আমাদের দলে যারা আছেন তারা আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলতে পছন্দ করে। সেরা একাদশে যারাই থাকুক না কেন, সবাই নিজেদের শতভাগ দিয়ে চেষ্টা করবে। আশা করেছিলাম, স্টেইন থাকবে সেরা একাদশে। তবে শেষ মুহূর্তে বাদ পড়েছেন। তিনি ছাড়াও আমাদের দলে আছে লুঙ্গি নিগিদি, কাগিসো রাবাদার মতো বিশ্বসেরা বোলাররা। আশা করি ভালো একটা ম্যাচ উপহার দিতে পারব।

এর আগে ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা মুখোমুখি হয়েছিল ৫৯ ম্যাচে। তারমধ্যে ইংল্যান্ড জিতেছিল ২৬ ম্যাচে আর দক্ষিণ আফ্রিকা জিতেছিল ২৯টি ম্যাচে। বাতিল হয়েছিল ৩ ম্যাচ। বিশ্বকাপের দেখায় ৬টি ম্যাচে সমান ৩টি করে জয় পেয়েছিল দু’দল।

ইংল্যান্ড সম্ভাব্য একাদশ 

জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, ইয়ন মরগান (অধিনায়ক) বেন স্টোকস, জস বাটলার (উইকেট-রক্ষক), মঈন আলী, ক্রিস ওকস, লিয়াম প্লাংকেট, জোফরা আর্চার ও আদিল রশিদ।

দক্ষিণ আফ্রিকা সম্ভাব্য একাদশ 

হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেট-রক্ষক), এউইন মার্করাম, ফাফ ডু প্লেসি (অধিনায়ক), জেপি ডুমিনি, ডেভিড মিলার, অ্যান্ডি ফিলহুকওয়েও, ক্রিস মরিস, কাগিসো রাবদা, লুঙ্গি নিগিদি ও ইমরান তাহির।

এমআর/ওয়াই