logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬

প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগা থেকে অনু্প্রাণিত বিরাট

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২১ মে ২০১৯, ১৮:২৯
রবি শাস্ত্রী ও বিরাট কোহলি || ছবি- টুইটার
৫ জুন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ভারতের বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হবে। তার আগে ২৫ মে নিউজিল্যান্ড ও ২৮ মে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবেন ২০১১ সালের চ্যাম্পিয়নরা। সেই লক্ষ্যেই লন্ডন উড়ে যাচ্ছে ভারতীয় দল। তার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেছেন দলটির অধিনায়ক বিরাট কোহলি। 

এবারের বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়াকে নিয়ে প্রত্যাশা তুঙ্গে। গেল দুই বছর নিজেদের সেরাটা দিয়ে বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত হয়ে বিরাট কোহলি নেতৃত্বাধীন দলটি। তার প্রমাণ মিলেছে একের পর এক সিরিজ জয়ে। বিশেষজ্ঞরা এই দলটিকে বিশ্বকাপের অন্যতম দাবিদার হিসেবেই চিহ্নিত করেছেন। তবে বিশ্বকাপে অংশ নিতে চলা প্রতি দলকেই শক্তিশালী হিসেবে মানছেন বিরাট কোহলি।

ভারতের অধিনায়ক বলেন, ‘‘এটা সব থেকে বেশি চ্যালেঞ্জিং বিশ্বকাপ হতে চলেছে। যে কোনও দল যে কোনও সময় চমকে দিতে পারে। দলকে দ্রুত পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে।''

বিরাট নেতৃত্বাধীন দলটির সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সেও ওপর ভিত্তি করে তৃতীয়বারের মতো শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখছে ভারতীয়রা। দলের ব্যাটিং লাইনআপ যে কোনও প্রতিপক্ষের কাছে চ্যালেঞ্জের। বিরাট কোহলির মতো পারফরমার ব্যাটিং লাইন আপে থাকলে এমনিতেই শক্তি দ্বিগুণ বেড়ে যায়। 

বিরাট কোহলি বলেন, ‘‘বিশ্বকাপে সব রকমের রানই হতে পারে, তবে সেখানে বেশকিছু হাই স্কোরিং রানের ম্যাচ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’’

১৯৯২ সালের পর এবারই প্রথমবার রাউন্ড-রবিন লিগ পদ্ধতিতে আয়োজিত হবে বিশ্বকাপের আসর। অর্থাৎ সব দলকে খেলতে হবে একে অপরের ‍বিপক্ষে। যে কারণে পরের ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য সময়টাও অনেকটা বেশি পাওয়া যাবে। 

বিরাট কোহলি বলছেন, কঠিন লড়াই হবে। কিন্তু ভাল দিক হলো দুটো খেলার মাঝে সময় পাওয়া যাবে যাতে খেলোয়াড়রা ক্লান্তি কাটিয়ে উঠতে পারবে।

দীর্ঘ দুই মাসের বিশ্বকাপে যে ক্লান্তি আসবে সেটাই স্বাভাবিক। তবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, স্প্যানিশ লা লিগা থেকে অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন ভারত অধিনায়ক। ফুটবলের জনপ্রিয় দুটি আসরের উদাহরণ টেনে বিরাট কোহলি বলেন, প্রিমিয়ার লিগ, লা লিগায় তিন-চার মাস ধরে মাঠে খেলার সক্ষমতা ধরে রাখতে হয় খেলোয়াড়দের। আপনি যে কোনও জায়গা থেকে অনুপ্রাণিত হতে পারেন। যখন আমরা ভারতীয় সেনাবাহিনীর কথা বলি। আমরা যদি ওদের কথা ভেবে কিছু করতে পারি সেটাই সেরা হবে।

কোচ রবি শাস্ত্রী দলের ভূমিকা নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। তিনি বলেন, আমরা যদি আমাদের ক্ষমতা অনুযায়ী খেলতে পারি তা হলে বিশ্বকাপ এখানে আসবে।

এর সঙ্গে তিনি জুড়ে দেন, পিচ হয়তো ফ্ল্যাট হবে ইংল্যান্ডে। কিন্তু পরিস্থিতির উপর অনেক কিছু নির্ভর করবে। লন্ডনে গেলে বিভিন্ন রকম পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।

দলের প্রশংসা করে শাস্ত্রী বলেন, এটা একটা অভিজ্ঞ দল, সম্পূর্ণ একটা ইউনিট যারা একে অপরকে সাহায্য করে।

ওয়াই

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়