logo
  • ঢাকা সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬
evaly

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে অনেক মিস করি: সুনিল নারাইন

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১৬:২০ | আপডেট : ২৫ এপ্রিল ২০১৯, ১৭:০২
ছবি- সংগৃহীত
২০১৭ সালের পর থেকে তাকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জার্সিতে দেখা যায়নি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। সেটিও ছিল টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওই ম্যাচে ৪ ওভারে ১৫ রান দিয়ে নিয়েছিলেন ২ উইকেট। এরপর আর খেলেননি জাতীয় দলের হয়ে কোনও ম্যাচ।

জাতীয় দলের হয়ে না খেললেও চষে বেড়াচ্ছেন গোটা ক্রিকেট দুনিয়া। খেলেছেন বরিশাল বার্নার্স, ক্যাপ কোবরাস, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস, গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স, কলকাতা নাইট রাইডার্স, লাহোর কালান্দারস, মেলবোর্ন রেনেগেডস, মন্ট্রিয়েল টাইগারস, কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটরস, সিডনি সিক্সার্স, ত্রিনিদাদ নাইট রাইডার্স, ত্রিনিদাদ ও টোবাগো’র হয়ে।

সুনীল নারিন সবশেষ একদিনের ম্যাচ খেলেছিলেন ২০১৬ সালে আর টেস্ট খেলেছেন ২০১৩ সালে। জাতীয় দল থেকে তাই দূরত্বটা বেড়েছে অনেক।

গত ২৪ এপ্রিল দেশটির ক্রিকেট বোর্ড ঘোষণা করেছে ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দল। এই দলে জায়গা হয়েছে ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেলদের মতো ক্রিকেটারদের। তাদেরও দূরত্ব কম না জাতীয় দল থেকে।

কিন্তু ক্যারিবিয় ক্রিকেটের ভক্তদের একটা অপেক্ষা ছিল, গেইল-রাসেলের সঙ্গে দলে জায়গা হবে মারলন স্যামুয়েলস, কাইরন পোলার্ড আর সুনিল নারাইনের। তবে শেষ পর্যন্ত সেটি আর হয়নি। গেইল রাসেলের জায়গা হলেও জায়গা হয়নি স্যামুয়েলস, নারাইন আর পোলার্ডের।

এ নিয়ে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাচক রবার্ট হ্যানস বলেন, আমরা সুনিল নারাইনের সঙ্গে কথা বলেছি। সে জানিয়েছে, ১০ ওভার বোলিং করার মতো ফিট না এই মুহূর্তে। যে কারণে তাকে দলে রাখা সম্ভব হয়নি।

প্রধান নির্বাচক এমনটি জানালেও সূনীল নারিন বলেন, তার মন এখনও ওয়েস্ট ইন্ডিজেই পড়ে আছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে খুব মিস করেন তিনি।

‘আমি আসন্ন বিশ্বকাপ অনেক মিস করব। আমি দেশের হয়ে খেলাতে না পারাটাকে দুর্ভাগ্য বলে মনে করি। দেশের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খুব মিস করি। যেখানে আমার মন পড়ে থাকে।

নারীন নিজের দুর্বলতাও তুলে ধরে বলেন, আমি মনে করি ওয়ানডে ক্রিকেটের জন্য এখনো আমার আঙুল তৈরি না। টি-টোয়েন্টিটাই চালিয়ে যেতে পারি যেখানে মাত্র ৪ ওভার বল করতে হয়। তবুও এটাও সহজ নয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে আমার চিকিৎসা লাগবে। আমি এখনো দলকে শতভাগ দিতে নিজেকে তৈরি করতে পারিনি।

দেশের হয়ে বিশ্বকাপ মিস করতে যাওয়া নারীন বলেন, বিশ্বকাপে খেলতে পারলে সেটা আমার জন্য দারুণ হতো। এখানে খেলতে না পারাটা হৃদয়বিদারক। যখন আমি দেশের হয়ে খেলতাম আমার সবটা উজাড় করে দিতাম। আমি আবারো ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয়ে অবদান রাখতে চাই।

এমআর/এমকে

evaly
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়