• ঢাকা শনিবার, ২৩ মার্চ ২০১৯, ৯ চৈত্র ১৪২৫

মাশরাফির ফেরার ম্যাচে তৃতীয় জয় আবাহনীর

স্পোর্টস ডেস্ক
|  ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৮:০৩ | আপডেট : ১৪ মার্চ ২০১৯, ১৮:২৮
ছবি- সংগৃহীত
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) খেলা পরেরদিনই ধরতে হয়েছিল নিউজিল্যান্ডের বিমান। সেখানে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলে ফেরেন দেশে। এরপর সপ্তাহ খানেক বিরতি দিয়ে পরিবারসহ অবকাশ যাপনে যান ভারতে। চলতি মাসের ৪ মার্চ তারিখ থেকে ১২ মার্চ পর্যন্ত ভারতে ছুটি কাটিয়ে যোগ দিয়েছেন ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল)।

চলতি মৌসুমে আজ বৃহস্পতিবার নিজের প্রথম ম্যাচে আবাহনী লিমিটেডের হয়ে মাশরাফি মাঠে নামেন ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে।

টুর্নামেন্টের ১৩তম ম্যাচে মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ব্রাদার্স ইউনিয়ন টস জিতে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় গতবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনীকে।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে আবাহনীর ব্যাটাররা। টপ অর্ডারের চার ব্যাটসম্যান পার হতে পারেনি দশ রানের কোটা।

এরপর মিডল অর্ডারে নাজমুল হোসেন শান্তর ৪৪ আর দলীয় অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেনের ৫৪ রানের ইনিংস প্রতিরোধ গড়ে ব্রাদার্সের বোলারদের।

সাব্বির রহমান ১৩ রানে ফেরার পর মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের ৪৫ বলে ৫৯ আর মাশরাফি মোর্তজার ১৫ বলে ২৬ রানের ইনিংসে ৫০ ওভার শেষে ৬ উইকেটে ২৩৬ রান তুলতে পারে আবাহনী লিমিটেড।

ব্রাদার্সের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন মেহেদী হাসান ও নাঈম ইসলাম। ১টি করে উইকেট নেন চিরাগ জানি ও শরিফুল্লাহ।

--------------------------------------------------
আরো পড়ুন: জহুরুলের শতকে বিকেএসপিকে হারাল আবাহনী
--------------------------------------------------

জবাবে ব্যাট  করতে নেমে ব্রাদার্সের শুরুটাও হতাশার। প্রথম পাঁচ ব্যাটসম্যানের কেউই ছুঁতে পারেনি কুড়ি রান।

ব্রাদার্সের শুধু টপ অর্ডারই নয়, মিডল আর লোয়ার অর্ডারের বাকি ব্যাটসম্যানরাও ব্যর্থ হয়েছেন রান করতে। কিন্তু এত ব্যর্থতার ভেতরও ইয়াসির আলীর ব্যাট হাসল ঠিকই।

তার ব্যাটে আসে ১০৬ রান, ১১২ বলে। শেষ পর্যন্ত অপরাজিতই থেকে যান এই ডান-হাতি ব্যাটসম্যান।

ইয়াসিরের শতরানের ইনিংসেও বাকিদের ব্যর্থতায়  ৮ উইকেটে ২২২ রান পর্যন্ত তুলতে পারে ৫০ ওভারে।

ব্যাটে বলে দুর্দান্ত পারফর্ম করায় ম্যাচ সেরা সাইফউদ্দিন

১৪ রানের জয়ে আসরের তৃতীয় জয় নিশ্চিত করে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। আবাহনীর হয়ে ২টি করে উইকেট নেন মাশরাফি মুর্তজা ও সাব্বির রহমান। এছাড়া ১ উইকেট করে নেন সাইফউদ্দিন ও সানজামুল ইসলাম। 

এমআর/ওয়াই

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়