• ঢাকা শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ৫ মাঘ ১৪২৫

প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিকের পর প্রশ্নবিদ্ধ আলিস

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১২:৫৬ | আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৩:৫৯
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) প্রতিবারের অভিযোগ দেশীয় ক্রিকেটারের অপ্রাপ্তি। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) কিংবা পাকিস্তান সুপার লিগ (পিসিএলে) থেকে যে পরিমাণ স্থানীয় ক্রিকেটার পায় দলগুলো তার ছিটেফোঁটাও পায় না বিপিএল। প্রতি আসরেই বিদেশি খেলোয়াড়দের আধিপত্য থাকে টুর্নামেন্ট জুড়ে।

তবে প্রতি আসরেই দু-একজন ক্রিকেটার আসে নতুন সম্ভাবনা নিয়ে। তাসকিন আহমেদ, জাকির হাসান, আফিফ হোসেন ধ্রুবর বিপিএলের শুরুটা হয়েছে আশাজাগানিয়া।

এবারের ষষ্ঠ আসরে এমনই একজনকে দলে নিয়েছেন ঢাকা ডাইনামাইটস। নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে মাঠে নামায় অখ্যাত স্পিনার আলিস ইসলামকে। দেশি কিনা বিদেশি ক্রিকেটার তা নিয়েই দোটানায় পরে যায় সমর্থকরা।

প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেই বাজিমাৎ করেন আলিস। হ্যাট্রিক করে ম্যাচ জয়ে ভূমিকা রাখে সাভারের এই তরুণ। তবে বিপত্তি ঘটে অন্য জায়গায়। ম্যাচ শেষে পরাজিত দল রংপুর রাইডার্স প্রশ্ন তোলে আলিসের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে। কিছুটা সুনীল নারিনের মতো এই অ্যাকশনে তার হাতের কনুই ১৫ ডিগ্রির বেশি ঘুরে যায় বলে ধারণা তাদের।

এর আগে প্রথম বিভাগ ক্রিকেট খেলার সময় প্রশ্ন উঠে এই ডানহাতি বোলারের অ্যাকশন নিয়ে। তবে তা শুধরানো হয়েছে বলে জানান বিপিএল টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান ও বোলিং অ্যাকশন রিভিউ কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, ‘সে প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছিল কিন্তু সেটি সংশোধন করেছে। কেউ যদি রিপোর্টেড হয়ে থাকে তবে তাকে সংশোধনের সুযোগ দেওয়া হয়। সেও সংশোধনের কাজ করেছে।’

এদিকে প্লেয়ার ড্রাফটে আলিসের নাম না থাকলেও দলে তার অন্তর্ভুক্তি নিয়ে কথা বলে রংপুর রাইডার্স কর্তৃপক্ষ। এক বিজ্ঞপ্তিতে তারা জানায়, প্লেয়ার্স ড্রাফটের বাইরে একজন করে ক্রিকেটার খেলানো যাবে। সেই কোটায় আল ইসলাম ঢাকায় দলভুক্ত হয়েছেন। তবে আমরা তার দলভুক্তি নিয়ে কোনও প্রশ্ন তুলিনি। এটা বলতেই হচ্ছে যে, তার নাম প্রশ্নবিদ্ধ বোলিং অ্যাকশনের তালিকায় ছিল। আজকের ম্যাচ দেখে মনে হয়েছে তার অ্যাকশন এখনো ত্রুটিপূর্ণ। তার কনুই নির্ধারিত সীমা ১৫ ডিগ্রি ছাড়িয়ে যাচ্ছে বিশেষ করে সে যখন দুসরা মারছে।’ 

আরো পড়ুন:

এস