logo
  • ঢাকা সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬

প্রস্তুতিটা ভালোভাবেই সারল বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৮:৩০ | আপডেট : ২৩ জুলাই ২০১৯, ১৮:৩৯
BAN, SL, rtvonline
মোহাম্মদ মিঠুন ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৯৬ রানের জুটি গড়েন || ফাইল ছবি
দুই বিভাগেই দারুণ প্রস্তুতি সারল বাংলাদেশ দল। তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগে একটা গা গরমের ম্যাচ জয় পাওয়া মানে মূল সিরিজে আত্মবিশ্বাস নিয়ে মাঠে নামা। সেটা যদি সব দিক থেকেই দারুণ হয়, তাহলে তো কথাই নেই।

কলম্বোর পি সারা ওভালে মঙ্গলবার সকালে বাংলাদেশ দল মুখোমুখি হয় শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের। বিশ্বকাপের পর এটাই দুই দলের প্রথম সিরিজ। দু’দলই চাইবে এই সিরিজ জিতে আত্মবিশ্বাস বাড়াতে।

কলম্বোর এই মাঠে আগে ব্যাট করে লঙ্কান একাদশ। কিন্তু ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে টাইগার বোলারদের তোপে বিপর্যয়ে পড়ে স্বাগতিকরা।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই রুবেল হোসেনের বলে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন ওপেনার নিরশন ডিকভেলা। এরপর দুই নম্বরে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২ রান করে রুবেলের শিকার হন ওসান্দা ফার্নান্দো।

লঙ্কানদের প্রাথমিক ধাক্কা সামলে উঠতে যিনি লড়াই করছিলেন, তিনিও ২৬ রানের বেশি করতে পারেননি। ওপেনার ধানুস্কা গুনাথিলাকাকে ফেরান তাসকিন আহমেদ।

উইকেটে এমন আসা যাওয়ার মিছিলে খানিক স্বস্তি দেন ভানুকা রাজাপাকসে ও শিহান জয়সুরিয়া।

৫৬ রান করা জয়সুরিয়াকে সাজঘরে ফিরিয়ে ব্রেক থ্রু এনে দেন সৌম্য সরকার। এরপর ৩২ রান করা ভানুকাকেও ফেরান সৌম্যই।

তবে লঙ্কানদের এমন খারাপ অবস্থায়ও দলকে অসাধারণ এক ইনিংস উপহার দেন ধাসুন শানাকা। মাত্র ৬৩ বলে ৮৬ রানের অনবদ্য ইনিংস খেলে ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ দাঁড় করান ২৮২ রান।

বাংলাদেশের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন রুবেল হোসেন ও সৌম্য সরকার। এছাড়া ১টি করে উইকেট নেন তাসকিন, মুস্তাফিজ ও ফরহাদ রেজা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটাও ভালো করেন দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। কিন্তু এই ভালো বেশিদূর টেনে নিতেও ব্যর্থ হন দু’জন।

দলীয় ৪৫ রানে জুটি ভাঙ্গে সৌম্যর ১৩ রানে বিদায়ে। বিশ্বকাপে নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ হওয়া তামিম ইকবাল এই ম্যাচে করেন ৪৭ বলে ৩৭ রান।

দুই নম্বরে ব্যাট করতে এসে মোহাম্মদ মিথুন লম্বা জুটি গড়েন মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে। মুশফিক যদিও বরাবর অর্ধশতক করে ফেরেন সাজঘরে।

তবে থেমে যাননি মিথুন। মাহমুদুল্লাহ আর শেষে সাব্বির রহমানকে নিয়ে দলকে পৌঁছে দেন জয়ের খুব কাছেই। যদিও নিজের শতক থেকে মাত্র ৯ রান দূরে থাকতেই ক্যাচ আউট হয়ে ফেরেন সাজঘরে (৯১)।

মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে আসে ৩৩ আর সাব্বির করেন অপরাজিত ৩১ রান। শেষদিকে মোসাদ্দেক হোসেনের ১৫ রানে ১১ বল হাতে রেখেই ৫ উইকেটের জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ২ উইকেট নেন লাহিরু কুমারা। ১টি করে উইকেট নেন কাসুন রাজিথা, আকিলা ধনঞ্জয়া ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা।

আগামী ২৬ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। এরপর ২৮ ও ৩১ জুলাই বাকি দুই ম্যাচ।

এমআর/ওয়াই

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়