logo
  • ঢাকা বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ইডেন রোমাঞ্চের অপেক্ষায় বাংলাদেশ

স্পোর্তস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:১৮ | আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:২৩
ইডেন রোমাঞ্চের অপেক্ষায় বাংলাদেশ
ফাইল ছবি
টেস্টে বিশ্বসেরা দলের বিপক্ষে টেস্ট খেলা, রোমাঞ্চের এটাও বা কম কী। ইন্দোরে তিন দিনে টেস্ট হেরে কলকাতায় পা রেখেছে বাংলাদেশ। তবে এই টেস্টের রোমাঞ্চটা বাড়িয়ে দিয়েছে ইডেন গার্ডেনসে কৃত্রিম আলোয় গোলাপি বলে খেলা।

ইন্দোর ছেড়ে কলকাতা যাওয়ার আগে সবার চোখে মুখে রোমাঞ্চের চাপ। গোলাপি বলে অভিষেকটা দারুণ করতে চায় চায় বাংলাদেশ। তেমনটাই জানালেন পেসার আল-আমীন হোসেন।

দীর্ঘ তিন বছর পর দলে জায়গা পেয়ে ভারত সফরের টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলার সুযোগ হলেও ইন্দোর টেস্টে খেলার সুযোগ হয়নি এই ডান-হাতি পেসারের।

তবে কলকাতায় পা রাখার আগে আল-আমীন জানান, সবাই কতটা মুখিয়ে আছে ইডেন টেস্টের জন্য।

এই টেস্টে ভারতকেও চ্যালেঞ্জ নিতে হবে। কেন না, এর আগে স্বাগতিকদেরও গোলাপি বলে খেলার অভিজ্ঞতা নেই।

‘আমরা সবাই উন্মুখ হয়ে আছি। ইডেনে গোলাপি বলে ঐতিহাসিক টেস্ট। এখানে ভারতও অপরিচিত, আমরাও অপরিচিত। বলটাও নতুন। সেই হিসেবে মনে হয়, ভালো একটা চ্যালেঞ্জিং ম্যাচ হবে।’

গোলাপি বলে খেলার অভিজ্ঞতা ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের না থাকলেও টেস্টের সেরা ১১ ব্যাটসম্যানের র‍্যাঙ্কিংয়ে আছে পাঁচ জন। এই কঠিন চাপটা তো সামাল দিতেই হবে।

‘ওদের সব ব্যাটসম্যানই টপ ক্লাস ব্যাটসম্যান। র‍্যাঙ্কিংয়ে সেরা দশে ওদের দুই-তিনজন ব্যাটসম্যান আছে। গোলাপি বলে বোলারদের জন্য তাই একটা পরীক্ষা বলে আমার মনে হয়।’

তবে গোলাপি বলে কৃত্রিম আলোয় ব্যাট করাটা চ্যালেঞ্জিং মনে করছেন আল-আমীন। ফ্লাড-লাইটের আলোয় বলের মুভমেন্ট, সুইংও বেড়ে যাচ্ছে। তাই যে দলের বোলাররা ভালও করবে তারাই এগিয়ে থাকবে।

‘সন্ধ্যা হওয়ার সাথে সাথে ফ্লাড লাইট জ্বালিয়ে দেওয়া হবে তখন বলের মুভমেন্ট অনেক বেড়ে যাচ্ছে। ইন্দোরে অনুশীলনের সময় এমনই বুঝলাম। ব্যাটসম্যানদের জন্য চ্যালেঞ্জ হবে। এখানে যে দলের বোলাররা ভালো করবে সেই দল এগিয়ে থাকবে এই টেস্টে।’

নভেম্বরের শেষ প্রায়। এই সময়টায় শিশিরের আনাগোনা বেড়ে গেছে কলকাতায়। সন্ধ্যার পর স্বাভাবিক ভাবেই বল ভিজে যায়। এর জন্য বল ভিজিয়ে অনুশীলন করছে পেসাররা।

‘শেষ তিন চার দিন ধরে আমরা অনুশীলন করছি। কলকাতায় যাওয়ার পরও দুই তিনদিন সুযোগ পাবো। আমরা যারা পেস বোলার আছি এখনো বল ভিজিয়ে অনুশীলন করিনি। নতুন বলে কিভাবে সুইং পাওয়া যায় ও বলটা ব্যবহার করা যায় সেগুলো নিয়ে কাজ করছি। সন্ধ্যার পরের অনুশীলন বল ভিজে যায়, তখন আমরা ওভাবে মানিয়ে নেয়ার চেষ্টা করবো।’

এমআর/

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বাংলাদেশের ভারত সফর এর সর্বশেষ
  • বাংলাদেশের ভারত সফর এর পাঠক প্রিয়