• ঢাকা শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

ফাইনালে আমরাই ফেভারিট: বাংলাদেশ কোচ

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০২ মে ২০১৯, ১৯:৫৭
ছবি- বাফুফে
প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হয়েছে বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ মহিলা আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট। ছয় জাতির এই টুর্নামেন্টটি শুরু হয় ২২ এপ্রিল। নারীদের এই টুর্নামেন্টের ‘এ’ গ্রুপে অংশ নেয় লাওস, মঙ্গোলিয়া, তাজিকিস্তান। ‘বি’ গ্রুপে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল কিরগিজস্তান ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

whirpool
‘এ’ গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনালে কিরগিজদের বিপক্ষে ৭-১ গোলের বিশাল জয়ে ফাইনালে পৌঁছায় লাওস। 

অন্যদিকে ‘বি’ গ্রুপের সেরা বাংলাদেশ সেমিতে মঙ্গোলিয়াকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা।
 
শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টায় শিরোপা জেতার লড়াইয়ে মুখোমুখি টুর্নামেন্টের দুই সেরা দল। তার আগে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি বাংলাদেশে কোচ। 

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনে নিজের দলকেই ফেভারিট হিসেবে দাবি করছেন ছোটন।

তিনি বলেন, বঙ্গমাতার নামে এই টুর্নামেন্ট, তাই প্রথম থেকেই লক্ষ্য শিরোপাটা দেশে রেখে আসরটি স্বরণীয় করে রাখার। তাতে দেশের নারী ফুটবল আরও এগিয়ে যাবে। তবে এর জন্য ম্যাচে বাড়তি প্রচেষ্টার সঙ্গে মনোযোগটাও শতভাগ থাকতে হবে। আমরা যে রকম খেলেছি, নিজেদের মাঠে সবার সমর্থন পাচ্ছি, তাতে আমি মনে করি আমরাই ফেভারিট।

এই টুর্নামেন্টে লাওস তিন ম্যাচে ১৮ গোল দিয়েছে। অন্যদিকে প্রতিটি ম্যাচে আক্রমণ চালিয়েও ফিনিশিংয়ের কারণে বড় ব্যবধান গড়তে পারেনি স্বাগতিকরা।

এর জবাবে বাংলাদেশ কোচ বলেন, আমরা জয়ের জন্যই মাঠে নামবো। ফাইনালে প্রতিপক্ষ কঠিন হলেও সেটা ম্যাচ শেষে বোঝা যাবে। আগে মাঠের খেলা শেষ করি তারপর বলা যাবে এই ফাইনালে কে এগিয়ে।

গ্রুপ পর্বের নিজেদের শেষ ম্যাচে ইনজুরির কারণে ছিটকে পড়তে হয়েছিল সিরাত জাহান স্বপ্না ও কৃষ্ণা রাণী সরকারকে। আর তাই মঙ্গোলিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালেও পাওয়া যায়নি বাংলাদেশের সেরা দুই নারী ফুটবলারকে। গোলাম রব্বানী ছোটন জানালেন, ফাইনালে পাওয়া যাচ্ছে না স্বপ্নাকে। তবে ফিরেছেন কৃষ্ণা।

কোচ বলেন, স্বপ্নাকে ফাইনাল ম্যাচে আমরা পাচ্ছি না। তার সেরে উঠতে আরও দুই সপ্তাহের মতো সময় লাগবে। তবে, কৃষ্ণা আমরা খেলাতে পারবো। সে স্কোয়াডে থাকবে, দলের যে কোনো প্রয়োজনে তাকে নামানো হবে।

বাফুফের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে নারীদের নিয়ে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টর ফাইনাল উপভোগ করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ। এর পর বিজয়ীদের মাঝে শিরোপাও তুলে দেবেন তিনি।

ওয়াই

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়