spark
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু ৩০ জন, আক্রান্ত ২৬৮৬ জন, সুস্থ হয়েছেন ১৬২৮ জন: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

মেসি থেকে যে বিষয়টি শিখেছেন সাকিব

স্পোর্টস ডেস্ক আরটিভি অনলাইন
|  ১১ মে ২০২০, ১৪:২৯ | আপডেট : ১১ মে ২০২০, ১৫:৩৫
shakib al hasan, messi
মেসির জার্সিতে সাকিব আল হাসন || ফাইল ছবি
ডয়চে ভেলের সঙ্গে মুখোমুখি হয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। জার্মানভিত্তিক আন্তর্জাতিক এই গণমাধ্যমের বাংলা বিভাগের প্রধান খালেদ মুহিউদ্দীনের সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করেছেন ক্যারিয়ারের বিভিন্ন ধাপ নিয়ে।

২০১১ সালে দেশের মাটিতে বিশ্বকাপ খেলেছিল বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৫৩ রানে অল আউট হবার পর সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল এটা কি টাইগার ক্রিকেটের সবচেয়ে খারাপ কি না? সাকিব বলেছিলেন হয়ত এর থেকেও বাজে সময় আসতে পারে। বিষয়টিকে নিয়ে অনেকেই তার দাম্ভিকতা হিসেবে উল্লেখ করে ছিল। বেশ কয়েকবার তার মন্তব্য শুনে তাকে অহংকারী হিসেবেও চিহ্নিত করা হয়েছে। 

‘আমার মনে হয় আমি আগের তুলনায় অনেক বুঝি। ৯ বছর আগে আমার বয়স ছিল ২৩-২৪। ২৩ বছর বয়সী একটা ছেলে একটা দেশের বিশ্বকাপ দলের অধিনায়ক। ভুল অনেক কিছু হতেই পারে। আমি অস্বীকার করব না। ভুল-ভ্রান্তি থাকবেই। আমার কাছে মনে হয় অস্বীকার করে তাদের ভুলটাই সবচেয়ে বেশি। আমি অস্বীকার করছি না। স্বীকার করে নিচ্ছে। ট্যাকটিক্যালি-টেকনিক্যালি এখন অনেক পরিণত। বিশেষ করে সাংবাদিক সম্মেলনে অনেক ভালো বলতে পারি। যেটা হয়ত ২০১১, ২০১২ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত পারতাম না। এরপর থেকে আরও ভালো করেছি। সবমিলিয়ে মনে হয় যত দিন গেছে তত পরিণত হয়েছি।’

পেশাগত কারণে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করে থাকেন। তা ব্যক্তিগত ঝামেলা নয়। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার মনে করেন দেশের মানুষের প্রশ্নগুলোই তুলে ধরা হয় খেলোয়াড়দের কাছে। এই বিষয়ে আর্জেন্টাইন ফুটবল তারকা লিওনেল মেসি থেকে শিখেছেন তিনি।

‘আমি এগুলা বুঝেছি মেসির খেলা দেখতে দেখতে। তিনি অনেক সময় ভালো পারফর্ম করতে পারে না। তখন প্রশ্ন উঠে কেন ভালো করতে পারছে না । আমি বুঝতে পারি আমাকে বা আমার দলের খেলা দেখতে মানুষ প্রত্যাশা নিয়েই বসে। যখন মন মতো ফল পায় না, হতাশ হয়ে এমন কথা বলে ফেলে। আসলে মানুষের কথারই প্রতিফলন এগুলো। সাংবাদিকরা সেগুলোই আমাদের কাছে উপস্থাপন করে থাকেন।’

২০০৬ সালে ক্যারিয়ার শুরুর পর সাকিবের পারফরমেন্স নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়নি। বারবার কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয়েছে মাঠের বাইরের কাণ্ড নিয়ে।

সাকিবের মতে, ‘আপনি যখন পাবলিক ফিগার হয়ে যাবেন তখন এসব কথা উঠতে পারে এটা বুঝতে আমার সময় লেগেছে। মেসির দেশেই তার মতো খেলোয়াড়কে যখন গালি দেয়। আমি দুই-চারটা গালি খাচ্ছি ঠিকাছে। আসলে আমার উপরে মানুষের প্রত্যাশাটা অনেক বেশি। তার প্রতিফলনই আসলে এটা। আমি কখনওই নেতিবাচক হিসেবে বিষয়টি নেই না।’ 

ভক্তদের কাছ থেকে সমালোচনাও তাকে ব্যক্তি হিসেবে পরিণত হতে সাহায্য করেছে বলে উল্লেখ করেন এই স্পিনিং অলরাউন্ডার।

‘গালি দিচ্ছে ঠিক আছে তারা চায় আমি আরও ভালো করি। আমার কোনও ভুল হোক তারা এটা আশা করে না। আমিও চেষ্টা করেছি। আরও ভালো মানুষ হতে সাহায্য করেছে এগুলো।’

টাইগারদের ওয়ানডে দলের নতুন অধিনায়ক তামিম ইকবালের ভালো কিছু করতে পারবেন বলে আশা করেছেন সাকিব। 

‘অধিনায়ক, সহকারী অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তামিম। তার জন্য খুবই ভালো সুযোগ সব কিছু ঠিক মতো করার। অনেক ভালো কোচ পেয়েছে (রাসেল ডমিঙ্গো) । সময়টা কাছে লাগাতে পারলে আশা করি ভালো কিছু হবে।’

ওয়াই

RTVPLUS
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১৮১১২৯ ৮৮০৩৪ ২৩০৫
বিশ্ব ১২৬৪৫৬৫৫ ৭৩৮১৪০৮ ৫৬৩২৫১
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়