logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৮ ফাল্গুন ১৪২৬

পাকিস্তানের হয়ে খেলেছেন যে অমুসলিম ক্রিকেটাররা

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৮ | আপডেট : ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:০৭
non muslm cricketrs of pakistan
মোহাম্মদ ইউসুফ ও দানেশ কানেরিয়া
পাকিস্তান জাতীয় দলে এই পর্যন্ত সাতজন অমুসলিম ক্রিকেটার খেলেছেন। তাদের মধ্যে পাঁচজন ক্রিস্টান এবং দুইজন হিন্দু ধর্মাবলম্বী। ১৯৪৮ থেকে ১৯৫২ সাল পর্যন্ত প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট খেলেছেন রুশি দিনশো। ১৯৫০ সালে সিলন (বর্তমান শ্রীলঙ্কা) পাকিস্তান সফরে দুটি ম্যাচে খেলেন। আন অফিসিয়াল দুটি টেস্টে অংশ নিয়েছিলেন বাম-হাতি এই ব্যাটসম্যান। পরের বছর ভারত সফরের জন্য পাকিস্তান জাতীয় দলে সুযোগ পান রুশি। যদিও পার্সি ধর্মে বিশ্বাসী এই ব্যাটসম্যান একাদশে সুযোগ করে নিতে পারেননি। তাই কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচেও খেলা হয়নি তার।

এক নজরে দেখে নিন পাকিস্তানি অমুসলিম ক্রিকেটারদের নাম

ওয়ালিস মাথিয়াস

পাকিস্তানের হয়ে প্রথম অমুসলিম ক্রিকেটার হিসেবে আন্তর্জাতিক ম্যাচে মাঠে নামেন ওয়ালিস মাথিয়াস। ক্রিস্টানদের ক্যাথলিক মতাদর্শে বিশ্বাসী এই ব্যাটসম্যান ১৯৫৫ সালে ঢাকা টেস্টে অভিষেক করেন। ১৯৬২ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে ২১ ম্যাচে মোট ৭৮৩ রান ও ২২টি ক্যাচ ধরেন মাথিয়াস। 

ডানকান শার্প

১৯ শতকের মাঝামাঝি সময় থেকে ব্রিটিশ ভারতে বসবাস করে আসছিল ডানকান শার্পের পরিবার। ১৯৪৭ সালে বিভাগের পর লাহোরে চলে যান শার্প। প্রথমে পাকিস্তান রেলওয়েতে চাকরি নেন। এরপর ক্রিকেটে চলে আসেন। ১৯৫৯ সালে ঢাকায় তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজে অংশ নিতে আসে অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের প্রতিটি ম্যাচেই অংশ নেন অ্যাঙ্গলো পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান শার্প। সিরিজে এক অর্ধশতকসহ ১৩৪ রান করলেও নির্বাচকদের মন গলাতে পারেননি। পরে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক ক্রিকেটার ব্যারি জার্মানের সহযোগিতায় অ্যাডিলেডে পাড়ি জমান। অস্ট্রেলিয়া ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজের ক্যারিয়ার গড়েন।

আনতাও ডিসুজা

পাকিস্তানের হয়ে ৬ টেস্টে অংশ নিয়েছেন আনতাও ডিসুজা। ভারতের গোয়ায় জন্ম নিলেও স্বাধীনতার পর পরিবার নিয়ে পাকিস্তানে বাস করতে থাকেন ডিসুজা। ১৯৫৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অভিষেক হয়। সব শেষ খেলেছেন ১৯২ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। মোট ৭৬ রান ও ১৭ উইকেট রয়েছে এই ক্রিস্টান ক্রিকেটারের নামের সঙ্গে। 

অনিল দালপাট

প্রথম হিন্দু ক্রিকেটার হিসেবে পাকিস্তানের জার্সিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেন অনিল দালপাট। ১৯৮৪ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অভিষেক হয় এই উইকেট-রক্ষক ব্যাটসম্যানের। ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত ৯ টেস্টে ১৬৭ রান ও ১৫ ওয়ানডেতে অংশ নিয়ে করেছেন ৮৭ রান।

সোহাইল ফজল

জাতীয় দলের দুটি ওয়ানডে খেলেন পেস অলরাউন্ডার সোহাইল ফজল। লাহোরের ক্রিস্টান পরিবারে জন্ম নেয়া এই ক্রিকেটার ১৯৮৯ সালে শারজাহতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের বিপক্ষে দুটি ম্যাচে অংশ নেন তিনি।

ইউসুফ ইয়োহানা বর্তমানে মোহাম্মদ ইউসুফ

১৯৯৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় ইউসুফ ইয়োহানা নামে। ২০০৫ সালে ক্রিস্টান থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন ডান-হাতি এই ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ ইউসুফ হিসেবে পরিচিত পান। ২০১০ সালে ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর আগে পাকিস্তান ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজেকে প্রমাণ করতে সক্ষম হন। ৯০ টেস্টে করেছেন ৭ হাজার ৫৩০ রান। অন্যদিকে ২৮৮ ওয়ানডে খেলে ৯ হাজার ৭২০ রান করেছেন মোহাম্মদ ইউসুফ।

দানেশ কানেরিয়া

অনিল দালপাটের পর দ্বিতীয় হিন্দু হিসেবে পাকিস্তানের ক্যাপ মাথায় দিয়েছেন দানেশ কানেরিয়া। দেশটির ক্রিকেটের ইতিহাসে অন্যতম সেরা এই স্পিনার ২০১০ সালে ফিক্সিং কাণ্ডে জড়িয়ে পড়েন। এরপর নিষিদ্ধের খাতায় নিজের নাম লেখান। জাতীয় দলের হয়ে ৬১ টেস্টে ২৬১ উইকেট তুলেছেন এই লেগ স্পিনার। ১৮ ওয়ানডে খেলে ১৫ উইকেট শিকার করেন তিনি। 

ওয়াই/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়