দুজনের সম্মতিতে যা হয় তাই হয়েছে: নেইমার

প্রকাশ | ০৩ জুন ২০১৯, ১৯:০১ | আপডেট: ০৩ জুন ২০১৯, ১৯:১৭

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ছবি- সংগৃহীত

কয়েকদিন পরই শুরু হচ্ছে কোপা আমেরিকা। এর মধ্যেই বড় ধরনের বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন নেইমার। কয়েকদিন আগে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের একটি হোটেলে মদ্যপ অবস্থায় এক নারীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে। যদিও ব্রাজিলিয়ান তারকা নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। 

২৭ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ডের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলা হয়, ১৫ মে রাতে প্যারিসের একটি হোটেলে উপস্থিত ছিলেন তিনি। হোটেলে মাতাল অবস্থায় ওই নারী অসম্মতিতে শারীরিক নির্যাতন করেন।

এ ঘটনার পর গেল ৩১ মে ব্রাজিলের সাও পাওলোতে নেইমারের চুপ থাকলেও তার বাবা বলছেন এগুলো সাজানো ঘটনা।

এবার বিশ্বের সবচেয়ে দামী ফুটবলার নিজেই  মুখ খুলেছেন। নিজ ইন্সাটাগ্রামে প্রকাশ করা এক ভিডিও বার্তায় নেইমার দাবি করেন, তাকে হেনস্থা করতেই আইনজীবীর মাধ্যমে এমন অভিযোগ তোলা হয়েছে। 

নেইমার বলেন, ‘ওই নারীর সঙ্গে সব আলাপ আলোচনা আমি শেয়ার করছি। আমাদের সব ব্যক্তিগত মুহূর্তও। সবকিছুই সামনে আনা দরকার। সেখানে সত্যিকার অর্থেই তেমন কিছু হয়নি। সব যুগলদের মধ্যে দুজনের সম্মতিতে যা হয় চার দেয়ালে তেমন কিছুই হয়েছিল আমাদের মধ্যেও। আগামী দিনেও আমরা বার্তা আদান প্রদান করে যাবো। অভিযোগে সে তার কষ্টগুলো বলতে চেয়েছিল। আমাকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত করা হচ্ছে। এটা একটি ভারী শব্দ এবং একটি শক্তিশালী জিনিস। তবে এই মুহূর্তে যা হচ্ছে তা আমাকে বিস্মিত করছে। এটা শুনতে পারা খুব খারাপ এবং দুঃখজনক। 

এ ঘটনা থেকে শিক্ষা অর্জন করেছেন উল্লেখ করে নেইমার বলেন, আমাকে যারা ব্যক্তিগতভাবে চেনে তারা সবাই আমার চরিত্র এবং সততা সম্পর্কে ধারনা রাখে। তারা এটাও জানে যে আমি এমনটা করতে পারবো না। এটা আমার জন্য একটি ফাঁদ ছিল। ভবিষ্যতের জন্য এটা আমার শিক্ষা।’

ওয়াই