logo
  • ঢাকা শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬

মাশরাফি-সাকিবদের আগে লর্ডস মাতাতে যাচ্ছে স্বপ্না-রুবেলরা

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১২:৪৮ | আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ২২:৪৭
ছবি- সংগৃহীত
আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দ্বাদশ ওয়ানডে বিশ্বকাপের আসর। যেখানে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবে মাশরাফি-সাকিব-তামিমরা। তবে তার আগে লর্ডসে আরেকটি বিশ্বকাপ মাতাতে যাবে বাংলাদেশ দল। যেখানে লর্ডসে খেলার স্বপ্ন পূরণে লাল-সবুজের প্রতিনিধি হয়ে যাবে স্বপ্না-রুবেলরা।

আগামী ৩০ এপ্রিল থেকে ইংল্যান্ডে শুরু হতে যাওয়া সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিতব্য এই বিশ্বকাপের নাম দেওয়া হয়েছে ‘স্ট্রিট চাইল্ড’ বিশ্বকাপ। টুর্নামেন্টটির আয়োজনের দায়িত্বে আছে স্ট্রিট চাইল্ড ইউনাইটেড। যেখানে বাংলাদেশের সঙ্গে রয়েছে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কাসহ আরও ৯টি দল। যারা সকলেই পথশিশু। বিশ্বকাপটি চলবে আগামী ৭ মে পর্যন্ত।

বাবা-মায়ের পরিচয়হীন শিশুদের পাসপোর্ট পাওয়া নিয়ে শুরুতে বিপত্তি দেখা দিলেও পরবর্তীতে সকল সমস্যা দূর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির তত্ত্বাবধানে থাকা সোহেল আহমেদ।

প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ নিতে ৮ শিশুই বাংলাদেশের লোকাল অ্যাডুকেশন অ্যান্ড ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশনের (লিডো) অধীনে ছিল। ক্রিকেটের স্বপ্নে বিভোর শিশুরা বোর্ডের তদারকিতে আসার আগে ছিল কেরাণীগঞ্জের বছিলার লিডো পিস হোমে। পথশিশুদের সেবাদাতা অলাভজনক সংস্থাটির প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক ফরহাদ হোসেন অভিভাবক হয়ে আগলে রাখেন শিশুদের।

বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়ার আগে নিজের অনুভূতি জানিয়ে ক্রিকেটার স্বপ্না আক্তার বেশ উল্লসিত হয়ে বলেন, প্রথমবারের মতো এমন টুর্নামেন্ট খেলতে পারব জেনে খুব ভালো লাগছে। আর সবচেয়ে ভালো লাগছে খেলাধুলা জীবনের শুরুটা হচ্ছে লর্ডসের মতো জায়গা দিয়ে।

স্বপ্না আরও বলেন, আসলে ক্রিকেটটা সেভাবে আমার খেলা হতো না। আমি আর্ট করি, নাচ করি, অন্যান্য খেলাধুলা করি, কিন্তু ক্রিকেটটা খেলতাম না। গত একবছর হয়েছে ক্রিকেটে নিয়মিত। যখন শুনলাম এমন একটি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট হবে, পরে মন দিয়ে ভালোভাবে অনুশীলন করি। এখন ক্রিকেট বেশ ভালো লাগে।

বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়ার আগে খুদে এই ক্রিকেটাররা বুধবার এসেছিলেন শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। প্রথমবারের মতো মিরপুরের মাঠে পা দিয়ে তারা দেখা করেছেন স্বপ্নের ক্রিকেটার তামিম, মাহমুদুল্লাহ, মুশফিক, রুবেল ও মুস্তাফিজদের সঙ্গে।

৮ সদস্যের স্কোয়াড হলেও দলগুলা মাঠে নামবে ছয়জন করে খেলোয়াড় নিয়ে, যেখানে ছেলে-মেয়ের কোনও বৈষম্য থাকছে না।

পথশিশু বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশের ৮ ক্রিকেটার: স্বপ্না আক্তার, সানিয়া মির্জা, জেসমিন আক্তার, আরজু রহমান, রাসেল ইসলাম রুমেল, আবুল কাশেম, মোহাম্মদ রুবেল, নিজাম হোসেন।

এএ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়