• ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ মে ২০১৯, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

লরিস-সান ইয়াং মিনে পরাজিত গার্দিওলা

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১০ এপ্রিল ২০১৯, ১০:৩৬ | আপডেট : ১০ এপ্রিল ২০১৯, ১১:০৭

এবারের মৌসুমে কোয়াড্রাপল জয়ের সুযোগ পেপ গার্দিওলার সামনে। তবে সে সুযোগকে সহজ মনে করেননি গার্দিওলা। কারণ তার সামনে যে ছিল টটেনহ্যাম বাধা। অবশেষে তার সেই শঙ্কাই সত্যি হল। অন্তত প্রথম লেগে তাই হলো। আগুয়েরোর পেনাল্টি মিসের খেসারত দিল ম্যানসিটি। শেষ দিকে দক্ষিণ কোরিয়ার সান ইয়াং-মিনের একমাত্র গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে টটেনহ্যাম হটস্পার। 

মঙ্গলবার টটেনহ্যাম হটস্পারের নতুন মাঠে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় মুখোমুখি হয় দুই ইংলিশ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার সিটি ও টটেনহ্যাম হটস্পার। শেষ দিকে দক্ষিণ কোরিয়ার সান ইয়াং-মিনের এক গোলে ম্যানসিটিকে পরাজিত করে সেমির দিকে এগিয়ে রইলো হ্যারিকেনের দল।

অবশ্য এই হারেও সম্ভাবনা যে একেবারে শেষ হয়ে গেছে তা নয়। কারণ আগামী ১৭ এপ্রিল শেষ আটের ফিরতি লেগ ম্যানসিটির ঘরের মাঠ ইতিহাদে। তবে সেজন্য ফিরতি লেগে তাদের জিততে হবে অন্তত ২-০ গোলে। যদি টটেনহ্যাম কোনোভাবে একটা গোল সেদিন দিয়ে ফেলে, সেক্ষেত্রে গার্দিওলার দলের জন্য কাজটা কঠিন থেকে কঠিনতর হয়ে যাবে।

ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলে পিছিয়ে থাকলেও আক্রমণে এগিয়ে ছিল টটেনহ্যাম। ৮ম মিনিটে সুযোগ পেলেও মুসা সিসোকোর ক্রস ফাঁকায় পেয়ে উড়িয়ে মারেন ডেলে আলি। 

ম্যাচের ১১ তম মিনিটে বক্সের ভেতরে বল নিয়ে এগিয়ে যাওয়া রহিম স্টার্লিংকে ডানি রোজ কড়া ট্যাকল করায় পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। কিন্তু সার্জিও আগুয়েরোর শট দুর্দান্ত দক্ষতায় ঠেকিয়ে দেন টটেনহামের বিশ্বকাপ জয়ী ফরাসি গোলরক্ষক হুগো লরিস। 

এ নিয়ে ক্যারিয়ারে চ্যাম্পিয়নস লিগে ৪টি পেনাল্টি মিস করলেন আর্জেন্টাইন তারকা। তার অভিষেকের পর চ্যাম্পিয়নস লিগে এতো বেশি পেনাল্টি মিস করেননি আরও কেউই। মানে তার অভিষেকের পর চ্যাম্পিয়নস লিগে পেনাল্টি মিসের দৌড়ে তিনিই সবার ওপরে।

তবে এমন জয়ী ম্যাচে টটেনহ্যামকে দুঃসংবাদ দিয়ে ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন সেরা তারকা হ্যারি কেন। বিরতির পর ৫৫তম মিনিটে ফাবিয়ান ডেলফের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ে পায়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন হ্যারি কেইন।

হ্যারি কেন ইনজুরিতে পড়লেও জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্পার্সরা। ৭৯তম মিনিটে ক্রিস্টিয়ান এরিকসনের পাস থেকে সান ইয়ং মিন বল পেয়ে ডি-বক্সের ভেতরে একক প্রচেষ্টায় শট করলে বল কাঙ্খিত ঠিকানা খুঁজে পায়।

এরপর অনেক চেষ্টা করেও আর গোল শোধ দিতে পারেনি সিটিজেনরা। ফলে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা লড়াইয়ে থাকা সিটিকে পরাজয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়।

এএ/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়