logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬

বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের সম্প্রচার স্বত্ব পেলো আরটিভি

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৭:৪৫ | আপডেট : ০৭ মার্চ ২০১৯, ১৩:৩৬
২০১৯ সালের বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপের সরাসরি সম্প্রচারের স্বত্ব পেয়েছে বেঙ্গল মাল্টিমিডিয়া লিমিটেড (আরটিভি)। আজ মঙ্গলবার টুর্নামেন্টটির স্বত্বাধিকারী ‘কে-স্পোর্টসে’র সঙ্গে এই সংক্রান্ত একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

whirpool
বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনে আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান ও  ‘কে স্পোর্টসে’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহাদ এমএ করিম স্ব স্ব প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম. এ. মান্নান। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন- বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, ফেডারেশনের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী, বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ ও বাফুফে নারী উইংয়ের চেয়ারপারসন মাহফুজা আক্তার কিরণ।

এ সময় আরটিভির অনুষ্ঠান প্রধান দেওয়ান শামসুর রকিব, অনুষ্ঠান বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক সৈয়দ সাবাব আলী আরজু, বিক্রয় ও বিপনন বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক মোজাম্মেল হোসেন, আরটিভির ডিজিটাল অ্যান্ড সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ আবু নাসিম ও আরটিভি অনলাইনের উপ-প্রধান বার্তা সম্পাদক আবদুল হাকিম চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের পর এবার বঙ্গমাতা অনূর্ধ্ব-১৯ নারী টুর্নামেন্টেরও সত্ত্বাধিকারী হয় ‘কে স্পোর্টস’।

গেল বছরের অক্টোবরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের পঞ্চম আসরের স্বত্ব পেয়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। এ ধারাবাহিকতায় আগামী এপ্রিলে নারীদের অনূর্ধ্ব-১৯ দল নিয়ে হতে যাওয়া বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের স্বত্ব তাদের হাতে তুলে দেয় বাংলাদেশ ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি। 

দেশের ফুটবলে গেল বছর প্রথম পৃষ্ঠপোষক হিসেবে আত্মপ্রকাশ হয় ‘কে স্পোর্টসে’র। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে নিজেদের চাহিদা মতো মিডিয়া কাভারেজ পাওয়ায় নারীদের প্রথম আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টেও থাকতে আগ্রহী হয় তারা।

তাদের এই আগ্রহ লুফে নিয়ে চলতি বছরের শুরুর দিকে বাফুফে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে চুক্তিও করে ফেলে। চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে ‘কে স্পোর্টসে’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহাদ করিম বলেন, ‘বঙ্গমাতা অনুর্ধ্ব-১৯ নারী টুর্নামেন্টে আমরা মানগত কোনো তারতম্য করব না। টিভি সম্প্রচার থেকে শুরু করে সব কিছুই সর্বোচ্চ মানের যাতে হয় সে চেষ্টাই করব।

তারাই ধারাবাহিকতায় জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল আরটিভির সঙ্গে অনুর্ধ্ব-১৯ নারী টুর্নামেন্টের চুক্তি স্বাক্ষর করা হলো।

আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান, আমি অত্যন্ত আনন্দিত এই উদ্যেগের সঙ্গে এক হতে পেরে। সম্প্রচারের দায়িত্বটি নিতে পেরে। বঙ্গমাতার নামে এই টুর্নামেন্টে নারীদের এগিয়ে যাওয়া এবং নারীর ক্ষমতায়নের জন্য এটি একটি বড় পরিকল্পনা যেটা আমরা সফল করতে যাচ্ছি। আরটিভির পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই ফাহাদ ভাইকে। তিনি আমাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন আর তাই আমরা এর অংশ হতে পেরেছি।

সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, আমরা দেশে নয়, দেশের বাইরেও টুর্নামেন্টটি সম্প্রচার করব। নতুন প্রজন্ম এটি দেখবে এবং আশা করি উৎসাহিত হবে।

ম্যাচ সম্প্রচারের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি ওয়েব সিরিজও প্রচার করা হবে বলে জানিয়েছেন আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। তিনি বলেন,  টিভির পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নারীদের ক্ষমতায়নের জন্য ক্যাম্পেইন করা হবে। ডিজিটাল প্লার্টফমে মোট নয়টি ওয়েব সিরিজ তৈরি হবে। আর এই ক্যামপেইনের নাম “এগিয়ে যাওয়ায় নেই মানা”।

তিনি বলে, আমরা অনেক কিছুই সম্প্রচার করি। দেশ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, স্বাধীনতা, বাংলাদেশের মানুষের সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড নিয়ে। বিশেষ করে ক্রীড়ার উন্নয়নের জন্য কাজ করছি আমরা। বাংলাদেশের নারীদের জয়কে ফুটিয়ে তুলতে চাই। এশিয়ার গণ্ডি পেরিয়ে বিশ্বের বড় বড় সব টুর্নামেন্টে জয় পাবে আমাদের মেয়েরা। আর এই পথে এগিয়ে যাবার লক্ষ্যে শুভ সূচনা করা হয়েছে।

‘কে স্পোর্টসে’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফাহাদ করিম বলেন, আপনারা জানেন বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে সম্প্রচারের জন্য নিজেদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছিলাম। এরই ধারাবাহিকতায় বঙ্গমাতা অনুর্ধ্ব-১৯ নারী টুর্নামেন্টের জন্য আরটিভির সঙ্গে চুক্তি করা হলো। অনুর্ধ্ব-১৯ টুর্নামেন্ট বলে আমরা এটিকে ছোট করে দেখছি না। ইনশাল্লাহ এবার সেরা প্রযুক্তি ব্যবহার হবে। আমরা সবাই জানি আরটিভি অনেক বেশি জনপ্রিয় একটি চ্যানেল। তাদের রয়েছে শক্তিশালী স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তাদের রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি। আমাদের সঙ্গে যোগ দেয়ায় আরটিভি কর্তৃপক্ষকে জানাই আন্তরিক ধন্যবাদ। আশা করি তাদের মাধ্যমে টুর্নামেন্টটি বিশ্বের কাচে ব্যাপক পরিচিতি পাবে।  

আগামী এপ্রিলের শেষ দিকে এই নারীদের টুর্নামেন্টটি শুরু করার পরিকল্পনা রয়েছে বাফুফের। ইতোমধ্যে ছয়টি দেশ খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

তবে টুর্নামেন্টে কারা অংশ নেবে তা জানতে হলে অপেক্ষা করতে হবে আগামী মাস পর্যন্ত। মার্চের ১২ তারিখ বড় আয়োজন করে টুর্নামেন্ট নিয়ে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ।

ওয়াই/ এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়