logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬

মায়ের মৃত্যুর খবর শুনেও খেললেন ক্যারিবীয় ক্রিকেটার

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:৩৬ | আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:০৩
ক্রিকেট শুধু একটি খেলা না এটি একটি আবেগের নাম। এই আবেগ হার মানায় ব্যক্তি, পরিবার, জাতি, সম্প্রদায় সবকিছুকেই। তাই বাবার মৃত্যুকে ছাপিয়ে বিশ্বকাপের মঞ্চে শতক হাঁকিয়েছিলেন শচীন টেন্ডুলকার। ১৯৯৯ বিশ্বকাপে কেনিয়ার বিপক্ষে ১৪০ রানের সেই ইনিংস ভারতকে জয় এনে দিয়েছিল ৯৪ রানে। কিন্তু তার আগের ম্যাচেই জানতে পেরেছিলেন বাবা রমেশ টেন্ডুলকার পৃথিবী ছেড়েছেন চিরতরে।

এবার এমনই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলো অ্যান্টিগায়। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট চলার সময় মায়ের মৃত্যুর খবর পান ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেস বোলার আলজেরি জোসেপ। জন্মদাত্রীর মৃত্যুর খবর পেয়েও বাড়ি ফিরে যাননি ক্যারিবীয় এই ক্রিকেটার। শোককে শক্তিতে রূপান্তরিত করে ১০ উইকেটের বড় জয় নিয়ে দলের সঙ্গে মাঠ ছাড়েন তিনি।

ম্যাচের তৃতীয় দিনের সকালেই জানতে পারেন মা শ্যারন জোসেপ আর নেই। তবুও দমে যাননি ডানহাতি এই পেসার। মাঠে নেমেছিলেন কান্না জর্জরিত চোখ নিয়ে। ব্যাট হাতে ২০ বল খেলে ৭ রান করার পাশাপাশি বল হাতে তুলে নেন দুই উইকেট। তার দলও জয় পায় ১০ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে। প্রথম ইনিংসে সফরকারীদের ১৮৭ রানে অলআউট করার পর ৩০৬ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ড ১৩২ রানে গুটিয়ে গেলে ১৭ রানের লক্ষ্য পায় হোল্ডার বাহিনী। দুই ওপেনার ক্রেইগ ব্রেথওয়েট ও জন ক্যাম্পবেল ম্যাচ শেষ করে মাঠ ছাড়েন।

এদিন এই দু'দলের খেলোয়াড়রা কালো ব্যান্ড পরে মাঠে নেমেছিল। ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন হোল্ডার এই জয় জোসেপের শোকাতুর পরিবারকে উৎসর্গ করেছেন। তিনি বলেন, আজ এমন দিনে মাঠে থাকতে অনেক সাহস লাগে। অনেক মানুষই তা করতে পারে না। তাঁকে প্রশংসা করতেই হয়। আমরা সবাই মিলে আলজারি এবং তাঁর পরিবারের জন্য জয় তুলে নিতে চেয়েছি। এই জয় তাঁর পরিবারকে উৎসর্গ করছি। 

প্রথম ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডকে ৭৭ রানে অলআউট করে ৩৮১ রানের বড় জয় পেয়েছিল স্বাগতিকরা। এবার দ্বিতীয় টেস্টের এই জয়ে ৩ ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে জিতে নিলো ক্যারিবীয়রা। সিরিজের শেষ টেস্টটি হবে ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে।

আরো পড়ুন:

এস/এএ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়