logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

মেসির মিসের খেসারত দিলো আর্জেন্টিনা

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৬ জুন ২০১৮, ২০:৫৩ | আপডেট : ১৬ জুন ২০১৮, ২১:২৫
যাকে ঘিরে স্বপ্ন দেখছিল আর্জেন্টিনার সমর্থকরা তিনিই আজ ভিলেন হয়ে গেলেন ম্যাচ শেষে। অপরদিকে আইসল্যান্ড তাদের প্রথম বিশ্বকাপ ম্যাচে দুই বারের চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ছিনিয়ে নিয়েছে। এ ম্যাচ দিয়ে আর্জেন্টিনার জার্সিতে দেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড গড়লেন হাভিয়ের মাসচেরানো। আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে এটি তার ১৪৪তম ম্যাচ ছিল। এর আগে রেকর্ডটি ছিল সাবেক মিডফিল্ডার হাভিয়ের জেনেত্তির। তিনি খেলেছেন ১৪৩ ম্যাচ।

শনিবার মস্কোর স্পার্তাক স্টেডিয়ামে ‘ডি’ গ্রুপের প্রথম খেলায় আইসল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামে দুইবারের চ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা। ম্যাচের প্রথম থেকেই আইসল্যান্ডের ওপর চাপ সৃষ্টি করে খেলতে থাকে আর্জেন্টিনা। 

ম্যাচের ৪ মিনিটে ফ্রি কিক থেকে মেসির বাড়ানো বলে ওটামেন্দি মাথা ছোয়ালেও গোলবারের সামান্য বাইরে দিয়ে চলে যায়। ৮ মিনিটে আবারও ডি বক্সের বাইরে থেকে ফ্রি কিক পায় আর্জেন্টিনা। মেসির নেয়া ফ্রি কিকে তালিয়াফিকোর হেড একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এর ঠিক এক মিনিট পরেই গোলের সহজ সুযোগ পেয়েছিল আইসল্যান্ড। কাবায়েরোর ভুল পাসে আইসল্যান্ড বল পেলে ডি বক্সের ভেতর জারনাসন গোলমুখে শট নিতে ব্যর্থ হন।

ম্যাচের ১৯তম মিনিটে সার্জিও আগুয়েরোর গোলে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। আইসল্যান্ডের ডিফেন্ডারদের কাটিয়ে জোরালো শটে বল জালে পাঠান আগুয়েরো। তিনটি বিশ্বকাপ মিলে এবারের গোলটি বিশ্বকাপে আগুয়েরোর প্রথম গোল।

অবশ্য আর্জেন্টাইন সমর্থকদের এই আনন্দ বেশিক্ষণ ছিল না। এর চার মিনিট পর অর্থাৎ ২৩তম মিনিটে গোলটি পরিশোধ করেন আলফ্রেও ফিনবোগাসন। বক্সের মধ্যে থেকে জটলার ফাঁক দিয়ে কৌশলে বল জালে পাঠিয়ে দেন তিনি। বিশ্বকাপে আইসল্যান্ডের এটি অভিষেক গোল।  

অবশ্য প্রথমার্ধে এগিয়ে যেতে পারত আর্জেন্টিনা। প্রথমার্ধের শেষ দিকে আইসল্যান্ডের ডি-বক্সে একজনের হ্যান্ডবল হলেও রেফারি তা এড়িয়ে যান। এরপর আর কোনও গোল না হওয়ায় ১-১ গোলের সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় উভয় দল। বিরতি থেকে ফিরে পুরোপুরি ডিফেন্সে ঢুকে পড়ে বিশ্বকাপের নবাগত দল আইসল্যান্ড। মুহুর্মুহু আক্রমণে আইসল্যান্ডের ডিফেন্স কাপিয়ে তোলে আর্জেন্টিনা। কিন্তু গোলরক্ষকের দৃঢ়তায় আর গোল পেয়ে ওঠা হয়নি তাদের।

 

ম্যাচে ৬৩তম মিনিটে সবচেয়ে সহজ সুযোগ মিস করেন মেসি। ডি-বক্সের ভিতর সার্জিও আগুয়েরোকে আইসল্যান্ডের মাগনুসন ফাউল করলে পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন লিওনেল মেসি। এ নিয়ে জাতীয় দলের জার্সিতে ২১টি পেনাল্টি নিয়ে ৪টি মিস করলেন মেসি।

৮১ মিনিটে মোক্ষম সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি কিন্তু ডি বক্সের বাইরে থেকে নেয়ার দূরপাল্লার শট বার ঘেঁষে চলে যায়। ৮৮ মিনিটে মাসচেরানোর দূরপাল্লার দুর্বল শট সহজে তালুবন্দী করেন আইস গোলরক্ষক হ্যালডারসন। অতিরিক্ত সময়ে ডি বক্সের বাইরে থেকে মেসির নেয়া ডান পায়ের জোরালো শট একটুর জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ১-১ গোলে ড্র মেনে নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় আর্জেন্টিনাকে।

আর্জেন্টিনার এটি ১৭তম বিশ্বকাপ। এর আগে ১৬ বার বিশ্বকাপ থেকে দুইবার শিরোপো জিতেছে ও দুইবার রানার আপ হয়েছে। ২০১৪ সালে ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ফাইনালে উঠেছিল আর্জেন্টিনা। কিন্তু তারা শিরোপা জিততে পারেনি।

আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসির এটিই হতে পারে শেষ বিশ্বকাপ। তাই এবারের বিশ্বকাপটি তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আজ দিনের প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছে ফ্রান্স।

এএ/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়