logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯, ১২ আষাঢ় ১৪২৬

ইংল্যান্ডের লিড ২৭৩

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২২ অক্টোবর ২০১৬, ১৩:২২ | আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০১৬, ১৮:২৭
২ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে বেন স্টোকস ও জনি বেয়ারস্টো নৈপুণ্যে বিপর্যয় কাটিয়ে উঠেছে ইংল্যান্ড। দিন শেষে ৭৬ ওভারে ৮ উইকেটে ২২৮ রান সংগ্রহ করেছে সফরকারীরা। এ নিয়ে এখন ২৭৩ রানে এগিয়ে রয়েছে ইংলিশরা।

whirpool
এর আগে দ্বিতীয় দিনে ইংল্যান্ডের চেয়ে ৭২ রান পিছিয়ে তৃতীয় দিন শুরু করে বাংলাদেশ। তবে তা মোটেই ভালো হয়নি। ব্যাট করতে নেমে একের পর এক ভুল শট খেলে একাধারে উইকেট বিলিয়ে দেয় টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত আগের দিনের ২২১ রানের সঙ্গে আর মাত্র ২৭ রান যোগ করতে সক্ষম হয় মুশফিক বাহিনী।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৭৮ রান করেন তামিম ইকবাল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৮ রান করেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। আর মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ব্যাট থেকে আসে ৩৮ রান। এছাড়া সাকিব করেন ৩১ রান।

এ ইনিংসে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে সফল বোলার বেন স্টোকস। মাত্র ২৬ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি। মঈন আলী নিয়েছেন ৩ উইকেট। আদিল রশিদ তুলে নিয়েছেন ২ উইকেট। ১টি উইকেট গেছে গ্যারেথ বেটির দখলে।

এদিকে,  ৪৫ রানে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা ইংলিশ ব্যাটসম্যানরাও প্রথমে উইকেটের ভাষা পড়তে পারেননি। বাংলাদেশের স্পিনারদের ঘূর্ণিতে রীতিমতো খাবি খেতে থাকে তারা। মিরাজ, সাকিব ও তাইজুলের বোলিংয়ে ৪৬ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারায় ইংল্যান্ড।

দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই মেহেদী হাসান মিরাজের বলে স্লিপে মাহমুদউল্লাহকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক (১২)। তার বিদায়ের পর জো রুটকে (১) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ফেরান সাকিব আল হাসান। এটি টেস্ট ক্রিকেটে দেশের হয়ে সাকিবের ১৫০তম উইকেট। এর কিছুক্ষণ পর শর্ট লেগে ক্যাচ দিয়ে সাকিবের ১৫১তম উইকেট হয়ে ফেরেন বেন ডাকেট (১৫)। বাংলাদেশের হয়ে চতুর্থ শিকার করেন তাইজুল ইসলাম। দলীয় ৪৬ রানে তার বলে ইমরুল কায়েসের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন গ্যারি ব্যালান্স (৯)। আর ক্রিজে থিতু না হতেই দলীয় ৬২ রানে মুশফিকুর রহিমের হাতে হাতে ক্যাচ দিয়ে সাকিবের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন মঈন আলী (১৪)।

এরপর ক্রিজে আসেন জনি বেয়ারস্টো। তাকে নিয়ে খাবি খেতে থাকা দলকে টেনে তোলেন বেন স্টোকস। দলীয় ১৮৯ রানে কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন বেয়ারস্টো (৪৭)। তার আগে তাকে নিয়ে চাপ সামলানো ১২৭ রানের জুটি গড়েন স্টোকস। এরই মধ্যে অর্ধশতকও তুলে নেন তিনি। অবশ্য সঙ্গী হারানোর পর বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি এ অলরাউন্ডার। দলীয় ১৯৭ রানে সাকিবের বলে এলবিডব্লিউর শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন। এর আগে ৬ চার ও ৩ ছক্কায় খেলেন ৮৫ রানের ঝলমলে ইনিংস। তার কিছুক্ষণ পরই সেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফেরেন আদিল রশিদ। এটি সাকিবের ৫ম উইকেট। এ নিয়ে টেস্টে ১৫ বার ৫ উইকেট শিকার করলেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ২২৮ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করে ইংল্যান্ড। ১১ রান নিয়ে ক্রিস ওকস ও ১০ রানে স্টুয়ার্ট ব্রড ক্রিজে রয়েছেন। তারা রোববার চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করবেন।  

ডিএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়