DMCA.com Protection Status
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬

মুখ খুললেন হাথুরু

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৫:৫২ | আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৭:২৪
শ্রীলঙ্কান শিবিরের হাল ধরার পর প্রথম অ্যাসাইনমেন্ট হিসেবে বাংলাদেশ সফর করেন। শুরু থেকেই আত্মবিশ্বাসী ছিলেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহে। যদিও প্রথম দিকে দুই ম্যাচ হেরে কিছুটা ব্যাকফুটে চলে যান টাইগারদের সাবেক কোচ। তবে শেষ পর্যন্ত ঘুরে দাঁড়ান। জিতে নেন ত্রিদেশীয় সিরিজ ও স্বাগতিকদের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজও। 

অন্যদিকে বাংলাদেশের সহকারী কোচ রিচার্ড হ্যালসল বলেছিলেন, হাথুরু মাঠে গিয়ে খেলবেন না। তিনি রান করবে না, উইকেট নেবে না। 

প্রায় একই রকম সুর ছিল টাইগারদের টেকনিক্যাল ডিরেক্টরের দায়িত্বে থাকা খালেদ মাহমুদ সুজনও।

যেহেতু দীর্ঘ তিন বছর বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন সেহেতু সিরিজজুড়ে খুঁটিনাটিগুলোর ফায়দা ভালই লুটেছেন তিনি। বিষয়টি পরিষ্কার করলেন হাথুরু নিজেই। 

তিনি বলেন, সত্যি বলতে কি বাংলাদেশ দল সম্পর্কে আমার ধারণা অনেক উপকার করেছে। বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় সম্পর্কে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করেই মাঠে নেমেছিলাম। আমরা জানতাম চাপের সময়ে তারা কীভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাবে।

সিরিজের ম্যাচগুলো দেখে হতাশ হয়েছেন হাথুরুসিংহে। সাবেক শিষ্যদের নিয়ে তিনি বলেন, তারা (বাংলাদেশ) প্রথম দুই ম্যাচে ভালো করেছিল যেটা প্রত্যাশিত ছিল। যদি প্রথম দুই ম্যাচে তারা খারাপ করতো তাহলে আরও হতাশ হতাম। আমি এতোটা খারাপ অবস্থায় তাদেরকে রেখে আসিনি। আমি তাদের পারফরম্যান্সে তখন খুশি হয়েছি এবং তারা যেভাবে মানিয়ে নিয়েছিল তাতেও সন্তুষ্ট ছিলাম।

টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে জয় পেয়ে এগিয়ে আছে সফরকারীরা। আগামীকাল রোববার বিকেল ৫টায় দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল।

ম্যাচের আগের দিন সাংবাদিকদের কাছে লঙ্কান দলের সাবেক এই অলরাউন্ডার বলেন, আমরা এখানে কোনো ম্যাচ হারতে আসিনি। জয় দিয়ে শেষ করা উদ্দীপক হিসেবে কাজ করবে। এখন পর্যন্ত পুরো সফর নিয়ে আমি সন্তষ্ট।

বাংলাদেশ দলকে নিয়ে হাথুরু বলেন, এখান থেকে যাবার পর আমি চাই তারা ভালো করুক। আমি ওদের একজন শুভাকাঙ্খি হিসেবে থাকবো। ওরা কীভাবে সামনে এগোয়, সেদিকে চোখ রাখবো আমি।  

ওয়াই/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়