Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

ক্রীড়া প্রতিবেদক, আরটিভি নিউজ

  ০৩ আগস্ট ২০২১, ২২:৩১
আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২৩:৪২

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ

এত শর্তের ভাবনাতেই কী এমন দশা অজিদের!

নিজে ফিট থাকলেই তো খেলা। বর্তমান করোনা মহামারিতে খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষার ব্যপারে সজাগ ক্রিকেট বোর্ডগুলো। নিজেদের খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে স্বাগতিক দেশকে সফরকারী দলের বোর্ড থেকে নানা শর্ত বেঁধে দেয় স্বাভাবিক নিয়মেই।

তবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশ সফরে আসার আগে একগাদা শর্তনামা ধরিয়ে দিয়েছে। এখানেই শেষ নয়, বাংলাদেশে পা দেয়ার পর এই শর্তের পরিমাণ বেড়ে হয় দ্বিগুণ।

আরো পড়ুন...টাইগারদের সঙ্গে হেরে যা বললেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক

ঢাকায় পা রাখার আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে জানায় সিরিজ শুরুর আগে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে ক্রিকেটার ও সিরিজ সংশ্লিষ্ট সকলকে। অজিরা যে হোটেলে থাকবে সেটি সম্পূর্ণ আইসোলেশনে রাখতে হবে। এড়াতে হবে ইমিগ্রেশন জটিলতাও।

অজি দল মাঠে প্রবেশ করার পর মাঠ কর্মীরাও থাকতে পারবে না মাঠে। মাঠে থাকতে পারবে না ফটোগ্রাফার, এমন কী ব্রডকাস্টাররাও।

ঢাকায় পা রাখার পর নতুন করে বিধিনিষেধ দেয় আরও বেশ কয়েকটি। অস্ট্রেলিয়া দল অনুশীলন বা ম্যাচের আগে তাদের পর্যবেক্ষক দল আসবে দুই ঘণ্টা আগে। ম্যাচ বা অনুশীলন চলাকালীন বন্ধ থাকা লাগবে মিরপুর স্টেডিয়ামের সব প্রবেশ পথ।

খেলা চলাকালীন ড্রেসিং রুম বা মাঠে কোনও খাবার খাওয়া যাবে না। ছক্কা গ্যালারীতে বল গেলে দিতে হবে নতুন বল। এমন কী ম্যাচ শেষে হাত মেলানোও যাবে না তাদের সঙ্গে।

আজ ম্যাচ চলাকালীনও এসব বিধিনিষেধ মানতে দেখা যায় দুই দলের খেলোয়াড়দের। টস শেষে হাতও মেলাননি দুই অধিনায়ক। ম্যাচ শেষে কুশল বিনিময়ও হয়নি দুই দলের।

মঙ্গলবার পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে অজিরা হেরে গিয়েছে ২৩ রানে। কঠোর বিধিনিষেধ মানতে গিয়ে শরীর-মনের ওপর চাপ পড়েছে কী না অজিদের সেটাও ভাববার বিষয়।

তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান চিকিৎসক ডাক্তার দেবাশিষ চৌধুরী বলছেন, জৈব সুরক্ষা বলয় এমনই। তিনি মনে করছেন, এভাবেই সবাইকে অভ্যস্ত হতে, নিজেদের মানিয়ে নিতে ভবিষ্যতের জন্য।

এমআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS