Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ৯ আষাঢ় ১৪২৮

আল জাজিরার ফিক্সিং নিয়ে ডকুমেন্টারির কোনো প্রমাণ পায়নি আইসিসি

গত তিন বছর আগে ২০১৮ সালের ২৭ মে ‘ক্রিকেট'স ম্যাচ ফিক্সার্স’ নামে বেশ ঘটা করেই অনেক তথ্য প্রমাণ নিয়ে সংবাদ সংস্থা আল জাজিরা হাজির একটি ডকুমেন্টারি নিয়ে। ওই প্রতিবেদনের পর অনেকটা স্তম্ভিত হয়ে যায় ক্রিকেট সমর্থকেরা।

তবে কী, নাটক দেখছি ক্রিকেটের নামে? স্বাভাবিক ভাবেই এমন প্রশ্ন জেগেছে অনেকের মনে। এরপর আল জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে তদন্ত শুরু করে আইসিসি। সেই তদন্ত তিন বছরে শেষ করেছে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

এ নিয়ে আইসিসির ‘ইন্টেগ্রিটি’ বিষয়ক মহাব্যবস্থাপক অ্যালেক্স মার্শাল বলেছেন, “আলজাজিরাকে ধন্যবাদ ক্রিকেটে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করায়। কেন না, আমরা এসব নিয়ে কাজ করি। তবে এসব নিয়ে কাজ করতে হলে অবশ্যই শক্ত প্রমাণ হাতে নিয়ে কাজ করতে হয়। তাদের ডকুমেন্টারিতে যেসব যুক্তি দেখানো হয় সেগুলো আমরা খতিয়ে দেখেছি এবং সেগুলো ভিত্তিহীন বলে মনে হয়েছে আমাদের তদন্তকারীদের।”

তদন্ত শেষে আইসিসি জানিয়েছে, নির্ভরযোগ্য প্রমাণের অভাবে নির্দিষ্ট কারো বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আনা হচ্ছে না।

Faizan Lakhani on Twitter: "Aneel Munawar, an alleged fixer, told Al  Jazeera's under cover reporter about alleged spot fixes he carried in  India's Chennai Test against England and Ranchi Test against Australia.…

আইসিসির সংবাদ সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ২০১৬ সালে চেন্নাইতে ভারত-ইংল্যান্ড টেস্ট এবং ২০১৭ সালে রাঁচিতে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচে স্পট ফিক্সিংয়ের প্রমাণ পায় আলজাজিরা। এরপর এই দুই ম্যাচ খতিয়ে দেখতে চারজন স্বাধীন তদন্তকারী নিয়োগ দেয় আইসিসি। এই চারজন বেটিং ও ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ।

তদন্ত শেষে চার তদন্তকারী তাদের প্রতিবেদনে জানায়, যে বিষয়গুলোকে স্পট ফিক্সিং হিসেবে আইসিসি উল্লেখ করেছে সেগুলো স্পট ফিক্সিংয়ের আওতায় পড়ে না।

এমআর/

RTV Drama
RTVPLUS