logo
  • ঢাকা সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

অভিযোগ নেই, তামিমের আছে প্রাপ্তি, স্বস্তি

তামিম ইকবাল

এর আগেও অধিনায়কত্ব করেছেন জাতীয় দলের কিন্তু সেসব ছিল অস্থায়ী। এবার অধিনায়কত্ব করেছেন স্থায়ী দায়িত্ব পেয়ে। শুরুটা হয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ দিয়ে।

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে সফরকারীরা মাথা তুলেই দাঁড়াতে পারেনি তামিম বাহিনীর কাছে। বলা যায় প্রাপ্তির খাতায় যোগ হয়েছে শতভাগ নম্বর। দলের দারুণ পারফরম্যান্সের সঙ্গে ওয়ানডে সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলেও যোগ হয়েছে ৩০টি পয়েন্ট। সবমিলে দারুণ সন্তুষ্ট তামিমের।

‘ভালো করার যে ক্ষুধাটা ড্রেসিং রুমে ছিলো তা তিন ম্যাচেই ছিলো। এমন হয়নি যে গত দুই ম্যাচ জিতে যাওয়ার পরে আজ দলের কেউ তেমন রিলাক্সে ছিলো এমন কিছু না। আমরা জানতাম যে এখন পয়েন্ট সিস্টেম। আমাদের কোয়ালিফাইং খেলতে হবে কি হবে না এটা নিয়ে একটা ইস্যু থাকে। তাই প্রতিটা ম্যাচই খুব গুরুত্বপূর্ণ। সব ওয়ানডে ম্যাচই খুব গুরুত্বপূর্ণ। তাই যে ক্ষুধা ছিলো আমি খুব খুশি।’

তামিম মনে করছেন সবাই সবার জায়গা থেকে ভালো খেলেছে, ভালো করার তাগিদ ছিল। কিন্তু যে ছোট ছোট ভুলগুলা হয়েছে সেসব কাটিয়ে উঠলে দেশের বাইরেও ভালো খেলা সম্ভব।

‘ক্রিকেটে উন্নতির জায়গা সবসময়ই থেকে যায়। আজকে একটা সুযোগ ছিলো আমাদের দুইজনের মধ্যে একজনের সেঞ্চুরি করার। এগুলা যদি হতো তাহলে পরিপূর্ণ খেলা বলতে পারতাম। আমি ৬৪ করে আউট হয়ে গেলাম, সাকিব ৫০ করে আউট হয়ে গেলো, মুশফিক দেরিতে আসায় ওর হাতে হয়তো ওতো ওভার ছিলো না। এগুলা যদি এখন আমরা কাটিয়ে উঠতে পারি তাহলে হবে কি, যখন আমরা সফরে যাব তখন এগুলা সাহায্য করবে। আমরা সিরিজ জিতেছি এবং ভালো ভাবে জিতেছি তাই কোন অভিযোগ নেই।’

দীর্ঘ দিন ধরে আন্তর্জাতিক খেলা হয়নি। মাঠে নেমে আহামরি ভালো খেলার কথাও ভাবেনি কেউ। ভাবেননি তামিমও। তবে ধারাবাহিক খেলার চেষ্টা করেছেন তামিম ইকবাল। এসবের মাঝে বড় ইনিংস খেলতে না পারায় হতাশা আছে এই বাঁহাতি ওপেনারের।

‘প্রথম দুই ম্যাচে সুযোগ ছিলো অপরাজিত থাকার। আজকে সুযোগ ছিলো বড় ইনিংস খেলার। অবশ্যই হতাশা তো আছে। একদিক থেকে ভালো যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসে আমি রান পাচ্ছি। তাই এটা ঠিক আছে কিন্তু আরও ভালো হতে পারতো।’

এমআর/

RTV Drama
RTVPLUS