logo
  • ঢাকা শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ২১ ফাল্গুন ১৪২৭

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১১:৫৫
আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১২:২৩

তিন ভাই বোন যখন জাতীয় দলের খেলোয়াড়

Gary Neville Phil Neville Tracey Neville, RTV ONLINE
নেভিল পরিবারের তিন ভাইবোন

রায়ান গিগস, ডেভিড বেকহাম, পল স্কলসদের সঙ্গে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সোনালী সময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন নেভিল ব্রাদার্স। গ্যারি ও ফিল নেভিল ছোট বেলায় ক্রিকেট-ফুটবল দুইটাই খেলেছেন। স্কুলে পড়ার সময় ইংল্যান্ডের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাইকেল ভনের সঙ্গে খেলার অভিজ্ঞা রয়েছে গ্যারির। খেলেছেন গ্রিনমাউন্ট ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে। মজার বিষয় হচ্ছে, ১১৯২ সালে বোল্টন ক্রিকেট লিগে অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ম্যাথু হেইডেনের সঙ্গে ২৩৬ রানের জুটিও গড়েছিলেন। যেখানে ১১০ রানের অপরাজিত ছিলেন গ্যারি। একই সময় ম্যানইউর যু্বদল ও ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব ১৬ ফুটবল দলের হয়েও অভিষেক হয় তার। অন্যদিকে ফিল নেভিল ল্যাঙ্কাশায়ার অনূর্ধ্ব ১৯ দলের অধিনায়ক ছিলেন। একই ক্লাবের অনূর্ধ্ব ১৫ দলে খেলতেন ইংলিশ অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ। সাবেক তারকা ক্রিকেটার একবার বলেছিলেন, ‘ক্রিকেট চালিয়ে গেলে শচিন-পন্টিংদের অবস্থানে যেতে পারতেন ফিল।’

ম্যাথু হেইডেন ও গ্যারি নেভিল জুটি

গ্যারির জন্ম ১৯৭৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি। দুই বছর পর তার জমজ ভাইবোনের জন্ম হয়। ১৯৭৭ সালের ২১ জানুয়ারি জন্ম নেন ফিল ও ট্র্যাসি। ক্রিকেট ছেড়ে দুইভাই খেলেছেন জাতীয় ফুটবল দলে। অন্যদিকে ইংল্যান্ড জাতীয় নেটবল দলের হয়ে খেলেছেন তাদের বোন ট্র্যাসি নেভিল।

ম্যানচেস্টারের ব্যারি টাউনের এই পরিবারকে সবাই ক্রীড়া পরিবার হিসেবেই চেনে। তাদের বাবার নাম নেভিল নেভিল। বোল্টনের হয়ে লিগ পর্যায়ে পেশাদার ক্রিকেট খেলেছেন তিনি। পরবর্তীতে ব্যারি ফুটবল ক্লাবের পরিচালক হিসেবে দায়িত্বপালন করেছেন। দুই ছেলের ফুটবল এজেন্ট হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি।

ট্র্যাসি নেভিল

মা জিল নেভিল নেটবল খেলতেন। ব্যারি ফুটবল ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হিসেবের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। জিলের হাত ধরেই মেয়ে ট্র্যাসির নেটবলে আসা। একাধিক ইংলিশ ক্লাবসহ অস্ট্রেলিয়ান ক্লাবের হয়েও খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। অন্যদিকে ১৯৯৬ সালে জাতীয় দলের অভিষেক হয় ট্র্যাসির। ১৯৯৮ কমনওয়েলথ গেমস ও ১৯৯৯ ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপের ব্রোঞ্জ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

খেলা ছেড়ে বিভিন্ন ক্লাবের পর জাতীয় দলের কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেন ট্র্যাসি নেভিল। সেখানেও সফল। ২০১৮ কমনওয়েলথ গেমসে গোল্ড জিতে তার শিষ্যরা। ২০১৫ ও ২০১৯ সালে বিশ্বকাপে ব্রোঞ্জ নিয়ে ফেরে তার অধীনে থাকা ইংলিশ দল। ২০১৬ সালে সম্মানসূচক পদবী অর্ডার অব দ্য ব্রিটিশ এম্পায়ারও পেয়ছেন তিনি।

বাবার সঙ্গে নেভিল ভাতৃদ্বয়

বড় ভাই গ্যারির ফুটবল ক্যারিয়ারের পুরো সময়টাই কেটেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে। ১৯৯২ সাল থেকে ২০১১ পর্যন্ত ওল্ডট্রাফোর্ডে ছিলেন তিনি। ১৯৯৬ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের জার্সিতে ৮৫ ম্যাচে মাঠ মাতিয়েছেন।

ম্যানইউর হয়ে আটটি প্রিমিয়ার লিগ, তিনটি করে এফএ কাপ ও এফএ কমিউনিটি শিল্ড, দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগ, দুটি ফুটবল লিগ কাপ, একটি করে ইন্টার কন্টিনেন্টাল কাপ ও ফিফা বিশ্বকাপ জিতেছেন।

ইংল্যান্ডের জার্সিতে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের ব্রোঞ্জ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন গ্যারি। জায়গা পেয়েছেন ইংলিশ ফুটবলের হল অব ফেমে। খেলা শেষ করে জাতীয় দলের সহকারী কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। স্প্যানিশ ক্লাব ভ্যালেন্সিয়ার কোচিং করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার নামের সঙ্গে।

বর্তমানে ইংলিশ ক্লাব স্যালফোর্ড ইউনাইটেডর মালিক গ্যারি। এই দলটিতে শেয়ার রয়েছে ছোট ভাই ফিলসহ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বেশ কয়েকজন সাবেক ফুটবলারের।

ইংল্যান্ড ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডর জার্সিতে দুই ভাই

এদিকে ছয়টি প্রিমিয়ার লিগ, তিনটি এফএকাপ, তিনটি এফএ কমিউনিটি শিল্ড একটি করে চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইন্টারকন্টিনেন্টাল কাপে জয়ী হয়েছেন ফিল। ১৯৯৪ সাল ইউনাইডের জার্সি খেলা শুরুর পর সব শিরোপা এসেছে এই দলটির হয়েই। ২০০৫ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত খেলেছেন এভারটনে। ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত জাতীয় দলের হয়ে ৫৯ ম্যাচে অংশ নেন।

২০১৮ সাল থেকে ইংল্যান্ড নারী দলের কোচের দায়িত্বে ছিলেন ফিল। চলতি বছরের ১৮ জানুয়ারি সাবেক সতীর্থ ডেভিড বেকহামের আমেরিকান দল ইন্টার মিয়ামির কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন।

ওয়াই

RTV Drama
RTVPLUS