logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি ২০২১, ৮ মাঘ ১৪২৭

আরটিভি নিউজ

  ১০ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:৩৯
আপডেট : ১১ জানুয়ারি ২০২১, ১০:৩১

‘সাইফের মাধ্যমে বাংলাদেশকে বিশ্বে তুলে ধরতে চাই’

saif sporting club, rtv online
ছবি-আরটিভি নিউজ
রিয়াদুল হাসান রাফি, রহমত মিয়াদের মতো তারকা জাতীয় দলের নিয়মিত সদস্য। দীর্ঘদিন ধরে খেলছেন সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে। প্রথমবারের মতো দলটি ফেডারেশন কাপের ফাইনালে উঠেছিল। টুর্নামেন্টের শুরু থেকে দাপট দেখিয়েও ফাইনালে এসে বসুন্ধরা কিংসের কাছে ১-০ গোলে হারতে হয়েছে দলটিকে।

উত্তর বারিধারাকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ফেডারেশন কাপের যাত্রা শুরু করেছিল পল পুটের শিষ্যরা। বেলজিয়ান এই কোচের অধীনে দ্বিতীয় ম্যাচে ব্রাদার্সের বিপক্ষে জয় পায় ৬-১ গোলে।

গ্রুপের শেষ ম্যাচে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের বিপক্ষে ১-০তে জয় পায়। এতে ‘বি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়ে নক আউট পর্বে পৌঁছে তারা। 

কোর্য়াটার ফাইনালে প্রতিপক্ষ হিসেবে সামনে আসে মোহামেডান। ঐতিহ্যবাহী দলটির বিপক্ষে নির্ধারিত সময়ে ২-২ গোলে ড্র করে তারা। অতিরিক্ত সময়ে ফল না হলে টাইব্রেকারে গড়ায় খেলা। সেখানেও শেষ হয়নি। অবশেষে সাডেন ডেথে ৭-৬ এ জয় তুলে নিয়েছিল সাইফ।

চিটাগাং আবাহনীর বিপক্ষে সেমিফাইনালে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে ফাইনালে পৌঁছায় হলুদ-কালো শিবির।

পারফরম্যান্স নিয়ে তৃপ্তি দলের ক্লাবের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাসির উদ্দিন চৌধুরীর কণ্ঠে।

‘তাদের নিয়ে আমাদের প্রত্যাশা অনেক বেশি। শুধু ক্লাব নয় জাতীয় দলের হয়েও যাতে অবদান রাখতে পারে এমন খেলোয়াড়দের নিয়ে দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা আমরা নিয়েছিলাম। যেটার ফল এখন পাচ্ছি।’ 

টানা কয়েক মৌসুম বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়কে নিজেদের দলেই রেখেছিল সাইফ স্পোর্টিং।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, ‘দলের জন্য প্রাপ্তি হচ্ছে তারা চার বছর ধরে একসঙ্গে অনুশীলন করেছে, ম্যাচ খেলেছে। তাই নিজেদের মধ্যে একটা বোঝাপড়া তৈরি হয়েছে। এখন সময় এসেছে তাদের পারফরমেন্স দেখানোর। আমরা বিশ্বাস করি তারা যে কোনও দলের বিপক্ষে ভালো করতে সক্ষম।’ 

বাংলাদেশের ফুটবল সংস্কৃতিতে দীর্ঘ দিন খেলোয়াড়দের এক সঙ্গে দলা রাখতে দেখা যায় না। এমন পরিকল্পনার কথাটি জানতে চাওয়া হয় সাইফ পাওয়ারটেকের পরিচালক তরফদার রুহুল সাইফের কাছে।

তিনি বলেন, ‘আমরা ইউরোপের ক্লাবগুলোর মতো দল পরিচালনার চেষ্টা করি। দুইটা দল ভালো খেলেই আজকের ফাইনালে এসেছে। আগামীতে কীভাবে দলের জন্য আরও ভালো কিছু করা যায় সেটার চেষ্টা চালিয়ে যাবো। সাইফ স্পোর্টিংয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশকে বিশ্ব মানচিত্রে তুলে ধরাই আমাদের লক্ষ্য।’

খেলোয়াড়দের মান উন্নয়নের জন্য যা কিছু করার প্রয়োজন তা করা হবে উল্লেখ করে তরফদার রুহুল সাইফ বলেন, ‘আমরা দলের সবার পারফরমেন্স ভালো করার জন্য কাজ করছি। এরমধ্য থেকে যদি কোনও খেলোয়াড় ভালো করে তাহলে দেশের বাইরের দলেও সুযোগ পেতেই পারে।’

আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের প্রথম পর্ব। ফেডারেশন কাপের মতো সেখানেও দেখা যাবে না নিয়মিত অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়াকে। কলকাতা মোহামেডানের হয়ে আই-লিগে খেলতে বর্তমানে ভারতে অবস্থান করছেন জামাল। সাইফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন লিগের দ্বিতীয় পর্ব থেকেই সাইফের হয়ে মাঠে নামতে দেখা যাবে বাংলাদেশ ফুটবলের সবচেয়ে বড় তারকাকে।

‘জামাল ভূঁইয়া চলে গেছেন, আবার ফিরে আসবেন। কলকাতা মোহামেডানের সঙ্গে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সমঝোতার একটি চুক্তি হয়েছে। সেখানে মাত্র একটা মৌসুমের জন্য দলটির হয়ে খেলবেন তিনি। প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় পর্বে চলে আসবেন তিনি। তাকে নিয়ে ভবিষ্যতেও আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে।’ যোগ করেন নাসির উদ্দিন।

ওয়াই

RTV Drama
RTVPLUS