বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ

বরিশালকে হারিয়ে টানা তৃতীয় জয় চট্টগ্রামের

প্রকাশ | ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৭:১০

ক্রীড়া প্রতিবেদক, আরটিভি নিউজ
ছবি- বিসিবি

প্রথম ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকা, দ্বিতীয় ম্যাচে জেমকন খুলনাকে হারায় গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। দুই ম্যাচেই প্রতিপক্ষকে একশ রানের নিচে আঁটকে দেয় সাগরপাড়ের দলটি।

সোমবার তৃতীয় ম্যাচে ফরচুন বরিশালকে একশ রানের নিচে বেঁধে না রাখতে পারলেও হারিয়ে দিয়েছে চট্টগ্রাম। দুপুরে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে চট্টগ্রাম তুলে ১৫২ রান। জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা দারুণ করলেও শেষ পর্যন্ত হারতে হয়েছে তামিমদের।

বরিশালের ওপেনার তামিম ইকবাল ও মেহেদী মিরাজের জুটি ভাঙে ২৩ রানে। গত দুই ম্যাচের মতো আজও হতাশ করেন মিরাজ। ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন শরিফুল ইসলামর বলে তারই হাতে ক্যাচ দিয়ে।

গত ম্যাচে ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলা তামিম আজ করেন ৩২ রান। পারভেজ ইমনকে নিয়ে ভালো খেলার আভাস দিলেও সেটি ধরে রাখতে পারেননি দুজনের কেউই। তামিমের আগে পারভেজ বিদায় নেন ১১ রান করে।

এরপর আফিফ হোসেনের ২২ বলে ২৪, তৌহিদ হৃদয়ের ১৫, মাহিদুল অংকনের ১০ আর সুমন খানের ১৫ রান মিলে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১৪১ রানে থামে। এতে ১০ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রামের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান ১টি করে উইকেট নেন মোসাদ্দেক হোসেন ও সৌম্য সরকার।

দুপুরে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে চট্টগ্রাম দলের দুই ওপেনার সৌম্য সরকার আর লিটন দাসের জুটি ভাঙে মাত্র ২৩ রানে। সৌম্যকে ৫ (৬) রানে ফেরান আবু জায়েদ।

এরপর মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে ২৮ রানের জুটি গড়েন লিটন দাস। তবে মিঠুনকে ফিরতে হয় ১৩ বলে ১৭ রান করে সুমন খানের বলে ক্যাচ দিয়ে। মিঠুনের পর লিটনকেও ফিরতে হয় মেহেদী মিরাজের বলে ক্যাচ দিয়ে ৩৫ (২৫) রান করে।

এছাড়া শামসুর রহমানের ২৬, মোসাদ্দেক হোসেন ২৮ আর শেষ দিকে সৈকত আলীর ১১ বলে ২৭ রানের ইনিংসে ভর করে ৭ উইকেটে ১৫১ রান তোলে।

বরিশালের হয়ে ২ উইকেট নেন আবু জায়েদ ও ১টি করে উইকেট নেন সুমন খান, তাসকিন আহমেদ, কামরুল রাব্বী এবং মেহেদী মিরাজ।

এমআর/